জামিন চাইতে গিয়ে কারাগারে লতিফ সিদ্দিকী

বগুড়ায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় আওয়ামী লীগের সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ১২টার দিকে জেলা দায়রা জজ আদালতের সিনিয়র স্পেশাল জজ নরেশ চন্দ্র সরকারের এজলাসে দুই পক্ষের শুনানি শেষে এ আদেশ দেওয়া হয়।
বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার দরিয়াপুর মৌজায় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের ২.৩৮ একর সরকারি জমি ক্ষমতার অপব্যবহার করে দরপত্র ছাড়াই কম মূল্যে বিক্রি করে সরকারের আর্থিক ক্ষতি সাধন করার অভিযোগ তুলে ২০১৭ সালের অক্টোবরে ৪০৯/১০৯ ধারা ও দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে এ মামলা করেন দুদকের বগুড়া শাখার সহকারী পরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম।
দুর্নীতি দমন কমিশনের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) বগুড়া জজ কোর্টের অ্যাডভোকেট এস এম আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘আজকে দুর্নীতি দমন কমিশন, বগুড়া স্পেশাল জজ আদালতের ৩/১৯ স্পেশাল মামলায় সাবেক মন্ত্রী আসামি আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী হাজির হয়েছিলেন। ওনার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল ব্যক্তি স্বার্থে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার জন্য অর্পিত ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে অপরাধমূলক বিশ্বাসভঙ্গ করে সরকারের সম্পত্তি কম মূল্যে বিক্রি করে ৪০ লাখ ৬৯ হাজার ২১ টাকা ১১ পয়সা আর্থিক ক্ষতিসাধন করেছেন।’
‘এই মামলা এজাহারের পর তদন্ত হয়, অভিযোগপত্র দাখিল হয় এবং তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়। আজকে লতিফ সিদ্দিকী স্বেচ্ছায় (আদালতে) হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিজ্ঞ সিনিয়র স্পেশাল জজ নরেশ চন্দ্র সরকার আসামির জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁকে জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন।’

Leave a Reply

%d bloggers like this: