টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ নিহত ২

হাবিবুল ইসলাম হাবিব::
কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ দুইজন নিহত হয়েছে। রোববার ভোর ৪টার দিকে টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউপিস্থ কাটাবুনিয়া নৌকা ঘাটে ঘটনাটি ঘটে।

নিহতরা হলেন- টেকনাফ সদরের নাইটং পাড়ার মৃত রশিদ আহমদের ছেলে মো. রুবেল এবং উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের হাবিবুল্লার ছেলে ওমর ফারুক।

এসময় ঘটনাস্থল থেকে দুইটি এলজি (আগ্নেয়াস্ত্র), ১১ রাউন্ড শর্টগানের তাজা কার্তুজ ও ১৮ রাউন্ড কার্তুজের খোসা উদ্ধার করা হয়েছে বলে পুলিশ দাবি করেছে।

পুলিশের ভাষ্যমতে, বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। তাদেরকে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। নিহতদের মরদেহ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, রোহিঙ্গা পাচার মামলার আসামি মো. রুবেল এবং ওমর ফারুককে গ্রেপ্তারের জন্য কাটাবুনিয়া নৌকা ঘাটে পৌঁছালে আগে থেকে ওৎপেতে থাকা একদল মানব পাচারকারি পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়তে থাকে। এতে দুজন গুলিবিদ্ধ হয়। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে আহতদের প্রথমে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে কক্সবাজার জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

আহত এসআই নুরুল ইসলাম, মো. শামিম রেজা ও মো. মহি উদ্দিনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর সুস্থ রয়েছেন।

ওসি জানান, ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ময়নাতদন্ত শেষে দুইজনের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: