নিজে পরকীয়া করলে স্ত্রীকে তালাক দিতে পারবেন না স্বামী

বছরের পর বছর ধরে পরকীয়ায় আসক্ত এমন প্রতারক স্বামী তার স্ত্রীকে তালাক দিতে পারবেন না বলে শুক্রবার নির্দেশ দিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার একটি আদালত।
আদালতের রায়ে জোর দিয়ে বলা হয়, একটি বিয়েতে কেবল ক্ষতিগ্রস্ত পক্ষই চাইলে বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করতে পারবেন।
পরিচালক হং স্যাং-সু ২০১৬ সালে একটি বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেছিলেন, যার পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এই রায় দিলেন।
কান চল্লচ্চিত্র উৎসবসহ বিভিন্ন উৎসবে নিয়মিত প্রদর্শিত ও প্রশংসিত হয় হং সাং-সুর চলচ্চিত্রগুলো।
অভিনেত্রী কিম মিন-হির সঙ্গে তার সম্পর্ক প্রকাশ পাওয়ার পরপরই বিচ্ছেদের আবেদন জানান। কিন্তু, হংয়ের স্ত্রী বিচ্ছেদে রাজি না হওয়ায় দীর্ঘ একটি আইনি লড়াই শুরু হয় এই তারকা দম্পতির মধ্যে।
বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, শুক্রবার সিউলের পারিবারিক আদালত হংয়ের আবেদন নাকচ করে তাকে জরিমানা করেন।
দক্ষিণ কোরিয়ার সমাজ এখনও রক্ষণশীল। ২০১৫ সাল পর্যন্ত সেখানে পরকীয়ার শাস্তি হিসেবে দুই বছর কারাদণ্ডের ব্যবস্থা ছিল।
সেখানে এখন পরকীয়াকে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড হিসেবে বিবেচনা করা না হলেও এটি সামাজিকভাবে দারুণ নিন্দিত।
দেশটিতে ব্যাভিচারের বিরুদ্ধে আইন করা হয়েছিল মূলত নারীদের অধিকার রক্ষায়। কারণ, সেখানে কেবল বিয়েই নারীদের আইনি সুরক্ষা দিতে পারে। সেখানে বেশিরভাগ মেয়েরই কোনো স্বাধীন উপার্জন ছিল না।
তালাক সেখানে মেয়েদের জন্য ব্যাপক সামাজিক নিগ্রহের কারণ হয়ে ওঠে বলে জানায় এএফপি।
দক্ষিণ কোরিয়ার বিচারকরা বলেছেন, অবিশ্বস্ত স্বামীরা কোনো ন্যায্য অভিযোগ ছাড়া তালাক দিতে পারলে নারীরা অত্যন্ত ঝুঁকির মধ্যে পড়ে যাবে।
তবে বর্তমান তালাক আইনের সমালোচকরা বলছেন, এই আইন ব্যক্তি স্বাধীনতা ক্ষুণ্ণ করে এবং মানুষকে অসুখী বিবাহিত জীবনে আটকে রাখে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: