ভারতের কাছে হেরে ‘আত্মহত্যা’ করতে চেয়েছিলেন পাকিস্তান কোচ!

বিশ্বকাপে ভারতের সঙ্গে হেরে যাওয়ার পরে পাকিস্তানের হেড কোচ মিকি আর্থার নাকি আত্মহত্যা করার কথা ভেবেছিলেন! এমনই সাংঘাতিক কথা জানিয়েছেন তিনি। গত ১৬ জুন ভারতের কাছে ৮৯ রা‌নে হেরে যায় পাকিস্তান। আর তার পরই শুরু হয় প্রবল সমালোচনা ও ক্ষিপ্ত ভক্তদের ক্ষোভের ঢেউ।
তবে ওই হারের ফলে সেমিফাইনালের রাস্তা প্রায় বন্ধ হয়ে গেলেও, আশা এখনো বাঁচিয়ে রেখেছে তারা। রোববার দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে আরো একবার প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছে পাকিস্তান। তবে আর্থার মেনে নিচ্ছেন ভারতের কাছে হারের পর তাঁর মন ভেঙে গিয়েছিল। তিনি বলেন, ‘গত রোববার আমার মনে হচ্ছিল আত্মহত্যা করি।’ তবে এর পরই তিনি বলেন, ‘কিন্তু আপনারা জানেন, কেবল একটা পারফরম্যান্স দরকার হয়।’
সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়, বিষয়টি প্রসঙ্গে বিস্তারিত বলেন আর্থার, ‘এ রকমটা দ্রুতই ঘটে। আপনি একটা ম্যাচে হারলেন। আপনি আরো একটা ম্যাচে হারলেন। সংবাদমাধ্যমের খুঁটিয়ে বিচার, জনতার প্রত্যাশা আর তার পরই আপনি প্রায় টিকে থাকার লড়াইয়ে চলে গেলেন। আমরা সেখানেই পৌঁছে গিয়েছিলাম।’
আর্থারের আবেগপ্রবণ কথা থেকে নিজের পেশার প্রতি তাঁর আনুগত্য ফুটে উঠেছে। কোনো কোনো ভক্তের কাছে তাঁর এই কথায় ২০০৭ বিশ্বকাপের সময় তৎকালীন পাকিস্তানি কোচ বব উলমারের মৃত্যুর কথা মনে পড়ে গেছে।
লর্ডসে ৪৯ রানে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে কোচের মন ভালো করে দিয়েছেন ক্রিকেটাররা। আপাতত পাকিস্তানের লক্ষ্য বাকি ম্যাচগুলো জেতা ও নেট রান রেট ভাল রাখা, যাতে শেষ চারের দরজাটা খোলা যায়। বুধবার নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে খেলা পাকিস্তানের। কিউইরা এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে অপরাজিত। কাজেই পাকিস্তানের কাজটা যে খুব সহজ হবে না, তা ভালোই জানেন কোচ ও খেলোয়াড়রা।
আর্থার বলেন, ‘আমরা সব সময় প্লেয়ারদের বলি, একটাই পারফরম্যান্স লাগে। কে আমাদের উদ্দীপনা জোগাবে আজ?’

Leave a Reply

%d bloggers like this: