সেলফি এখন বড় ব্যবসা

একসময় সেলফি মানে তরুণ প্রজন্মের নিজেকে পরিচিত করে তোলার উপায় মনে করা হলেও এখন সেটি বড় ব্যবসায় পরিণত হয়েছে৷ হোটেলগুলো এখন তাদের ব্যবসা বাড়াতে ‘সেলফি পর্যটক’ ধরার চেষ্টায় ব্যস্ত৷
২০০৩ সালে সনিসহ অন্যান্য কোম্পানি যখন মোবাইলে ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা যুক্ত করা শুরু করে, তখন তার উদ্দেশ্য ছিল ভিডিও কলের মাধ্যমে ব্যবসায়িক মিটিং করার সুবিধা দেয়া৷
কিন্তু এ ধরনের ক্যামেরা যে একসময় সেলফি তোলার মাধ্যম হয়ে উঠবে, তা তখন ধারনা করা যায়নি৷
তবে সময়ের বিবর্তনে সেলফি এখন এতই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে যে, বিভিন্ন হোটেল এখন সেলফি স্পটের ব্যবস্থা করছে, চেক-ইনের সময় অতিথিদের সেলফি স্টিক দেয়ার অফারও করছে৷ যেমন সুইজারল্যান্ডের হোটেল ভিলা হনেগ সামাজিক মাধ্যমের কারণে বিখ্যাত হয়ে উঠেছে৷ কারণ ঐ হোটেলের সুইমিংপুল থেকে পেছনে আল্পস রেখে সেলফি তোলা যায়৷ অতিথিরা এসব সেলফি বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে আপলোড করায় ঐ হোটেল এখন বেশ জনপ্রিয়৷
২০১৪ সালে মান্দারিন ওরিয়েন্টাল হোটেল ‘সেলফি ইন প্যারিস’ নামে ফ্রান্সের রাজধানী ভ্রমণের একটি প্যাকেজ ট্যুরের ব্যবস্থা করেছিল৷
এছাড়া গ্রিসের রাজধানী এথেন্সের হোটেল গ্র্যান্ড ব্রেটানিয়ে অ্যাক্রোপলিসের সঙ্গে সেলফি তোলার সুযোগ করে দিতে হোটেলের ভেতর একটি আলাদা স্পটের ব্যবস্থা করেছে৷ আর ম্যারিয়ট হোটেল চেন ক্যালিফোর্নিয়ায় তাদের ডেজার্ট স্প্রিংস রিসোর্টে চেক-ইনের সময় ‘সেলফি স্টিক’ দেয়ার অফার করে থাকে৷
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ‘এক্সপেরিয়েন্স-ইকোনমি’র প্রসার বাড়ায় সেলফিও বড় ব্যবসা হয়ে উঠছে৷ বর্তমানে মানুষ টাকা খরচ করে হলেও নতুন কিছুর অভিজ্ঞতা (এক্সপেরিয়েন্স) পেতে চায়৷ মানুষের এমন আগ্রহকে পুঁজি করে বিভিন্ন সেবা চালু হয়েছে৷ জরিপ বলছে, ২০১৫ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে পশ্চিম ইউরোপে অভিজ্ঞতা অর্জন সংক্রান্ত সেবা পেতে খরচের হার পাঁচ শতাংশ বেড়েছে৷ এর বিপরীতে, প্রয়োজনীয় সেবা পেতে খরচের হার বেড়েছে ২.৩ শতাংশ৷
মানুষ যখন টাকা খরচ করে নতুন অভিজ্ঞতা পেতে চায় তখন সে সেই স্মৃতি ধরে রাখতে চায়৷ এক্ষেত্রে সেলফি একটি ভালো মাধ্যম৷ তাই মোবাইল ফোন নির্মাতারা ভালো সেলফি ক্যামেরা তৈরির প্রতিযোগিতায় নেমেছে৷ এতে এগিয়ে আছে চীনা ফোন নির্মাতা হুয়াওয়ে৷ এছাড়া শিয়াওমি সেলফি লেন্সেরও ব্যবস্থা করেছে৷
মার্কিন গবেষণা প্রতিষ্ঠান গার্টনারের বিশ্লেষক রবার্টা কোজ্জা বলেন, উন্নত স্মার্টফোনের মাধ্যমে সেলফি তুলে সামাজিক মাধ্যমে তা প্রকাশের সুবিধা থাকায় দিন দিন সেলফি বড় অর্থনীতিতে পরিণত হচ্ছে৷

Leave a Reply

%d bloggers like this: