আবারও বিক্ষোভে উত্তাল হংকং

আবারও বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে হংকং। রোববার শা তিন শহরে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনকালে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে।
গণতান্ত্রিক সংস্কারের দাবি এবং হংকংয়ের স্বাধীনতায় চীনের হস্তক্ষেপের উদ্বেগ প্রকাশ করে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন কয়েক লাখ মানুষ। বিক্ষোভ মিছিল থেকে অনেকে চীনপন্থী হিসেবে পরিচিত হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি ল্যামের পদত্যাগ দাবি করেছেন।
কিছু বিক্ষোভকারীর হাতে থাকা ব্যানারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উদ্দেশে লেখা ছিল, ‘দয়া করে হংকংকে স্বাধীন করুন’ এবং ‘আমাদের সংবিধান রক্ষা করুন’। অনেকের হাতে আবার ছিল যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেনের পতাকা। কেউ কেউ স্বাধীনতার পক্ষে স্লোগানও দিয়েছেন।
বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারী ২৫ বছরের এক তরুণ বলেছেন, ‘আমি বিক্ষোভে এখনো ক্লান্ত হইনি, আমাদের অধিকারের জন্য আমাদের লড়াই করা প্রয়োজন।’
বিক্ষোভকারীরা পুলিশের নির্দেশিত পথ ছাড়া অন্য পথে মিছিল নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাদের লক্ষ্য করে পিপার স্প্রে করে পুলিশ। বিক্ষোভকারীদের মধ্যে মুখোশ পরিহিত কয়েকজন ব্যারিকেড দেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
‘এক দেশ দুই ব্যবস্থা’র শর্তে ১৯৯৭ সালে হংকংকে চীনের কাছে হস্তান্তর করে ব্রিটেন। এর মধ্যে শর্ত ছিলো পরবর্তী ৫০ বছর মূল ভূখন্ড চীন হংকংয়ের বিচার ও স্বায়ত্ত্বশাসন ব্যবস্থায় কোনো ধরণের হস্তক্ষেপ করতে পারবে না। তবে সম্প্রতি বিভিন্ন ইস্যুতে চীন পরোক্ষভাবে হংকংয়ের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরোপের চেষ্টা করলে তা স্থানীয়দের উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। সর্বশেষ অপরাধী প্রত্যর্পণ বিল বাতিলের দাবিতে গত মাস থেকে হংকংয়ে ব্যাপক বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থী ও গণতন্ত্রপন্থীরা। আন্দোলনের মুখে চীনপন্থী হিসেবে পরিচিত হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি ল্যাম বিলটিকে সম্প্রতি‘মৃত’ঘোষণা করেছেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: