এইচএসসিতে ফলাফলে নিম্মমুখি কক্সবাজার,পাসের হার ৫৪.৩৯%


কক্সবাজারে এইচএসসির ফলাফলে বিপর্যয় ঘটেছে। গত বছরের তুলনায় এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় পাসের হার কমলেও জিপিএ-৫ বেড়েছে।গতকাল প্রকাশিত ফলাফলে জেলায় এইসএসসি তে পাসের হার ৫৪ দশমিক ৩৯ শতাংশ। যা গতবারের তুলনায় ৭ দশমিক ২৭ শতাংশ কম। এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫৬ জন। অপরদিকে ২০১৮ সালে কক্সবাজারে ১০ হাজার ৪২৪ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাশ করেছিল ৬ হাজার ৪২৭ জন। ঔই বছর পাসের হার ছিল ৬১ দশমিক ৬৬ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৩৮ জন। তবে এবছর জিপিএ-৫ বেড়েছে।
প্রাপ্ত তথ্য মতে, ২০১৯ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় কক্সবাজার জেলায় মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১০ হাজার ৬৯৮ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেছে ১০ হাজার ৬২০জন। পাস করেছে ৫ হাজার ৭শ ৭৬জন। পাশের হার ৫৪.৩৯ শতাংশ। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫৬ জন। এর মধ্যে ২৭জন ছেলে এবং ২৯ জন মেয়ে। জেলায় ৫১ জন জিপিএ-৫ পেয়ে এবারও শীর্ষে রয়েছে কক্সবাজার সরকারী কলেজ ।এছাড়া সরকারী মহিলা কলেজে ১জন, মহেশখালী কলেজে ১ জন ও ঈদগাহ ফরিদ আহম্মদ কলেজে ১ জন জিপিএ ৫ পেয়েছে।
এবছর জেলায় বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ১৪শ ৫২শিক্ষার্থীর মধ্যে পরীক্ষায় অংশ নেয় ১৪শ ৩৫ জন। যেখানে পাস করেছে ১ হাজার ৯৭ জন। পাশের হার ৭৬.৪৫ শতাংশ।গতবছর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মোট পাশ করেছিল ৮৯৭ জন এবং পাশের হার ছিল ৭০.৯৭%। জিপিএ-৫ পেয়েছিল ২৪ জন।
বাণিজ্য বিভাগ থেকে এবছর ৬হাজার ১২৯শিক্ষার্থীর মধ্যে পরীক্ষায় অংশ নেয় ৬ হাজার ৮৬ জন। যেখানে পাস করেছে ২ হাজার ৭৯৬ জন। পাশের হার ৪৫.৯৪ শতাংশ। গতবছর ৩ হাজার ৮৯ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছিল ১হাজার ৯শ ২০জন। পাসের হার ছিল ৬২.১৬ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১১ জন।
মানবিক বিভাগ থেকে এবছর ৩ হাজার ১১৭ শিক্ষার্থীর মধ্যে পরীক্ষায় অংশ নেয় ৩ হাজার ৯৯ জন। যেখানে পাস করেছে ১ হাজার ৮৮৩ জন। পাশের হার ৬০.৭৬ শতাংশ।গতবছর ৪ হাজার ৭শ ৭২জনের মধ্যে পাশ করেছিল ২ হাজার ২১৫ জন।পাশের হার ছিল ৪৬.৪২ শতাংশ।জিপিএ-৫ পেয়েছিল মাত্র ২ জন।
এদিকে,কক্সবাজার সরকারি কলেজে এবছর ৯৯৯ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে পাশ করেছে ৯৪০ জন এবং পাশের হার ৯৪.০৯ শতাংশ। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫১ জন। এর মধ্যে বিজ্ঞানে ৩৯ জন, ব্যবসায় শিক্ষায় ৬ জন এবং মানবিকে ৬ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে।
তারমধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে ৪০৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাশ করেছে ৩৯০ জন। পাশের হার ৯৬.৫৩ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৯ জন।
বণিজ্য বিভাগে ৩২৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাশ করেছে ৩১৪ জন। পাশের হার ৯৬.৯১ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ জন।
আর মানবিক বিভাগে ২৭১ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাশ করেছে ২৩৬ জন। পাশের হার ৮৭.০৮ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ জন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: