এরশাদের মরদেহ পেছনে রেখে সেলফি তুলতে ব্যস্ত নেতাকর্মীরা

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শ্রদ্ধা জানাতে তার মরদেহ নিয়ে আসা হয়েছে কাকরাইলের দলীয় কার্যালয়ে। কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় লাশবাহী ফ্রিজার ভ্যানে সাবেক এই রাষ্ট্রপতির মৃতদেহ রাখা হয়েছে। প্রিয় নেতাকে শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে জড়ো হয়েছেন শোকাহত শতশত নেতাকর্মী।
বিভিন্ন জেলা থেকে আসা এসব নেতাকর্মীদের একটি অংশ সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে এইচ এম এরশাদের মৃতদেহে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন। তবে এদের একটি অংশকে দেখা গেছে, লাশবাহী ফ্রিজার ভ‍্যানের সঙ্গে নিজেদের সেলফি তুলতে ব্যস্ত থাকতে।
‘শোকে স্তব্ধ’ এসব নেতাকর্মীদের কারও কারও মুখে দেখা গেছে হাসি। আবার কেউ কেউ মোনাজাতের ভঙ্গিমায় ছবি তুলছেন। তবে সেলফি তুলতে ব্যস্ত থাকা এসব নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলতে গেলে তাদের কেউই কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।
দলীয় কার্যালয়ে শ্রদ্ধা শেষে তার মরদেহ জাতীয় বাইতুল মোকাররম মসজিদে নেয়া হবে। সেখানে বাদ আসর তার আরেকটি জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।
এর আগে আজ সকাল সোয়া ১০টার দিকে তার মরদেহ দ্বিতীয় জানাজার জন্য জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় নেয়া হয়। সেখানে তার দ্বিতীয় জানাজা সম্পন্ন হয়।
রোববার (১৪ জুলাই) ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর। ৯০ বছর বয়সী এরশাদ রক্তে সংক্রমণসহ লিভার জটিলতায় ভুগছিলেন।
গত ২২ জুন সিএমএইচে ভর্তি করা হয় তাকে। এর আগেও তিনি একাধিকবার দেশ-বিদেশে চিকিৎসা নেন।
রোববার মৃত্যুর পর সেনা কেন্দ্রীয় মসজিদে তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: