গরুর ধর্ম হিন্দু!

গরুর আবার ধর্ম কি? তবে ভারতের উত্তরপ্রদেশের এক বিজেপি নেতা বলছেন গরুর ধর্ম নাকি হিন্দু। তার এ বক্তব্যে ভারত জুড়ে শুরু হয়েছে আলোচনা-সমালোচনা।
বিজেপির এ নেতার নাম রঞ্জিত শ্রীবাস্তব। তিনি বলেছেন, গরু হিন্দু ধর্মাবলম্বী। মৃত্যুর পর গরুর দেহ মাটিতে না পুঁতে শ্মশানে দাহ করা উচিত বলেও তিনি দাবি করেছেন। বিজেপি নেতার এই দাবিতেই হাসির রোল পড়ে যায়।
তিনি বলেন, ‘সাধারণত গরু মারা যাওয়ার পর মাটিতে তার দেহ পুঁতে দেয়া হয়। মুসলমানদের কবর দেয়ার সঙ্গে এই রীতির মিল রয়েছে। কিন্তু গরু হিন্দু ধর্মাবলম্বী। তাই তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করার জন্য দেহ পুড়িয়ে দেয়াই বাঞ্চনীয়। আমি আমাদের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে বলব, অবিলম্বে সরকারিভাবে এমন নির্দেশিকা জারি করুন। শুধু তাই নয়, আমি বলব গরুদের দাহ করার জন্য পৃথক শ্মশান তৈরি হোক। তাতে অবশ্যই থাকতে হবে বৈদ্যুতিন চুল্লিও।’
হিন্দু ধর্মালম্বীরা গরুকে দেবতা হিসেবে মানেন। উত্তরপ্রদেশে এটি আরও প্রকট। এ রাজ্যে গো-রক্ষায় বিজেপি অন্যান্য অনেক রাজ্য থেকে বেশি ব্যস্ত। আর এ নিয়ে সমালোচনাও হয়েছে অনেক। এবার উত্তরপ্রদেশের বারাবাঁকির বিজেপি নেতা রঞ্জিত শ্রীবাস্তব এ আলোচনা-সমালোচনায় নতুন মাত্রা যোগ করলেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: