গুজবরোধে সারা দেশে তৎপর ৬১ লাখ আনসার: ডিজি

সম্প্রতি সারা দেশে ছড়িয়ে পড়া গুজবের বিরুদ্ধে গ্রামেগঞ্জে সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করছে আনসার-ভিডিপির সদস্যরা। তারা প্রতিটি বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন এবং মানুষকে বোঝাচ্ছেন। পদ্মাসেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগবে-এমন গুজবে কান না দেয়ার জন্যও প্রত্যেককে বলছেন।
মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) রাজধানীর খিলগাঁওয়ে আনসার-ভিডিপির সদর দফতরে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন বাংলাদেশ আনসার-ভিডিপি ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর নতুন মহাপরিচালক মেজর জেনারেল শরীফ কায়কোবাদ।
তিনি বলেন, এ বাহিনীর সদস্যরা দেশের প্রতিটি দুর্যোগে রাতদিন কাজ করেন। অন্য বাহিনীদের সাথে তারা কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করেন। গেল নির্বাচনে এ বাহিনীর ৩০ জন সদস্য মারা গেছেন। এবারই প্রথম জাতীয় নির্বাচনে এ বাহিনী সদস্যরা নিজস্ব পোশাকে ডিউটি করেছে। তবে সম্প্রতি এ বাহিনীর কতিপয় সদস্যদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আসছে। অভিযোগ আসা মাত্র ওই সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। তদন্ত চলাকালে তাকে আর দায়িত্ব পালন করতে দেয়া হয় না।
মহাপরিচালক বলেন, এ বাহিনীর সদস্যরা যাতে তদন্ত ও অনুসন্ধ্যান করতে পারেন তার জন্য সরকারের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে। আবেদনটি এখনো বিবেচনায় আছে। এ বাহিনীর সদস্যদের জন্য উন্নত ট্রেনিং দেয়া হচ্ছে। তাদের প্রযুক্তিতেও উন্নত করা হচ্ছে। তাদের জন্য এবার নতুনভাবে ৩০ হাজার অস্ত্র যুক্ত হয়েছে, আরো যুক্ত হবে। পর্যায়ক্রমে এ অস্ত্রের সংখ্যা বাড়বে।
সারা দেশে আনসার-ভিডিপির ৬১ লাখ সদস্য রয়েছে। তাদের প্রত্যেকের অস্ত্র ট্রেনিং রয়েছে। তারা বিভিন্ন নির্বাচন ছাড়াও দুর্যোগকালীন মুহূর্তগুলোতে অগ্রণী ভুমিকা পালন করে থাকেন।
১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে এই আনসার-ভিডিপির ৬৭০ জন্য সদস্য শহীদ হন। এর মধ্যে একজন বীরবিক্রম ও আরেকজন বীর প্রতীক খেতাবে ভূষিত হয়েছেন বলে জানান তিনি। এসময় মহাপরিচালক বাহিনীটির ভবিষ্যতের নানা পরিকল্পনার কথাও তুলে ধরেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: