ছেলে ধরা সন্দেহে বাঁশখালীতে তিন ছাগল ব্যবসায়ীকে গণপিটুনি

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নে ছেলে ধরা সন্দেহে তিন ছাগল ব্যবসায়ীকে গণপিটুনি দিয়েছে জনতা। পিটুনিতে আহতরা হলেন, মো. জনি(৩১), সোহেল(৩২) , হৃদয়হরণ(১৯) ।
সোমবার(২২জুলাই) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্থানীয় এক ব্যবসায়ী এই তিনজন ছাগল ব্যবসায়ীকে কম দামে ছাগল বিক্রি করবে ডেকে নিয়ে যায়। পরে দরে দামে না মিললে স্থানীয় ঐ ব্যবসায়ী প্রথমে এই তিনজনকে মারধর শুরু করে। পরে ছেলে ধরা গুজব রটিয়ে স্থানীয়দের নিয়ে তাদের বেধরক মারধর করে।
বাঁশখালী থানার রামদাস মুন্সীর হাট তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক মামুন হাসান বলেন, দুপুরে এ তিন যুবক ইলশা গ্রামে ছাগল কিনতে যায়। এসময় স্থানীয় লোকজন তাদের ছেলেধরা সন্দেহে মারধর করে। খবর পেয়ে আমরা ঘটনান্থলে গিয়ে তিনজনকে উদ্ধার করে নিয়ে আসি।
আহতরা ছাগল কিনতে ইলশা গ্রামে গিয়েছিল বলে পুলিশ জানালেও তাদের বিস্তারিত পরিচয় জানাতে পারেনি।

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নে ছেলে ধরা সন্দেহে তিন ছাগল ব্যবসায়ীকে গণপিটুনি দিয়েছে জনতা। পিটুনিতে আহতরা হলেন, মো. জনি(৩১), সোহেল(৩২) , হৃদয়হরণ(১৯) ।
সোমবার(২২জুলাই) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্থানীয় এক ব্যবসায়ী এই তিনজন ছাগল ব্যবসায়ীকে কম দামে ছাগল বিক্রি করবে ডেকে নিয়ে যায়। পরে দরে দামে না মিললে স্থানীয় ঐ ব্যবসায়ী প্রথমে এই তিনজনকে মারধর শুরু করে। পরে ছেলে ধরা গুজব রটিয়ে স্থানীয়দের নিয়ে তাদের বেধরক মারধর করে।
বাঁশখালী থানার রামদাস মুন্সীর হাট তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক মামুন হাসান বলেন, দুপুরে এ তিন যুবক ইলশা গ্রামে ছাগল কিনতে যায়। এসময় স্থানীয় লোকজন তাদের ছেলেধরা সন্দেহে মারধর করে। খবর পেয়ে আমরা ঘটনান্থলে গিয়ে তিনজনকে উদ্ধার করে নিয়ে আসি।
আহতরা ছাগল কিনতে ইলশা গ্রামে গিয়েছিল বলে পুলিশ জানালেও তাদের বিস্তারিত পরিচয় জানাতে পারেনি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: