জাপায় নেতৃত্ব নিয়ে হ-য-ব-র-ল

: জাতীয় পার্টির নেতৃত্ব নিয়ে চলছে হ-য-ব-র-ল অবস্থা। সদ্যপ্রয়াত হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পর দলটির হাল কে ধরবেন, তা নিয়ে স্ত্রী রওশন এরশাদের সঙ্গে ছোট ভাই জি এম কাদেরের ক্ষমতার লড়াই এরই মধ্যে প্রকাশ্য হয়ে পড়েছে। বিষয়টি নিয়ে দলের নেতাকর্মীরাও দু’ভাগ হয়ে পড়েছেন। ফলে দলটির ভবিষ্যৎ নিয়েও জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের মধ্যেই শঙ্কা তৈরি হয়েছে।
তবে দলের ভেতর কোনো গ্রুপিং নেই উল্লেখ করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের সারাবাংলাকে বলেন, পার্টির মধ্যে কোনো বিরোধ নেই। জাতীয় পার্টি শক্তিশালী হচ্ছে। নেতাকর্মীরা এক আছেন। শিগগির দলের বিভাগীয়, জেলা উপজেলা পর্যায়ে কাউন্সিল করা হবে। পরে কেন্দ্রীয় কাউন্সিল করা হবে।
দলটির একাধিক কেন্দ্রীয় নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দলের অধিকাংশ কেন্দ্রীয় নেতা ও সংসদ সদস্য জি এম কাদেরকে দলের চেয়ারম্যান হিসেবে মানছেন না। প্রেসিডিয়াম বৈঠকে সবার মতামতের ভিত্তিতেই দলের প্রধান নির্ধারণ করার পক্ষেই অধিকাংশ নেতা।
তবে বিষয়টি আমলেই নিচ্ছেন না জিএম কাদেরের অনুসারীরা। তারা বলছেন, দলের চেয়ারম্যান এরশাদের মৃত্যুর আগে জিএম কাদেরকে তার অনুপস্থিতিতে দলের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনের অনুমোদন দিয়ে গেছেন। ফলে এই নিয়ে নতুন করে ভাবার কোনো অবকাশ নেই।
অন্যদিকে রওশন এরশাদের অনুসারীরা বলছেন, সদ্য প্রয়াত দলের প্রধান এরশাদ তার অনুপস্থিতিতে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনের জন্য জিএম কাদেরকে নির্বাচন করলেও দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তা প্রেসিডিয়াম বৈঠকে পাস করাতে হবে। কিন্তু সেই প্রেসিডিয়াম বৈঠক এখনো হয়নি। তারা জানান, রওশন এরশাদ দলের ভাঙন নয়, সমন্বয় চান। পাশাপাশি দলের ভেতর গণতান্ত্রিক চর্চার জন্য সব সিদ্ধান্ত যেন সম্মিলিতভাবে হয়, সে বিষয়ের ওপর জোর দিচ্ছেন।
সম্প্রতি রওশন এরশাদসহ দলের সিনিয়র নেতারা জিএম কাদেরর চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনের বিরোধিতা করে একটি বিবৃতিও দিয়েছেন। এ নিয়ে দলের ভেতরে তোলপাড় উঠেছে। এর ফলে দলটির নেতৃত্ব নিয়ে রওশন-কাদের দ্বন্দ্বও প্রকাশ্যে চলে আসে। এর পরপরই জিএম কাদের দলের সাংগঠনিক পরিস্থিতি উন্নয়নে জেলা সফর ও বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে কথা বলতে শুরু করেন। একইসঙ্গে রওশন এরশাদের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের চেষ্টা করছেন বলেও জানা গেছে।
রওশন এরশাদের সঙ্গে দ্বন্দ্ব প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, তিনি আমার মায়ের মতো। তিনি আমার বড় ভাবী। তার সঙ্গে কোনো বিরোধ নেই। তিনি আমার মাথার ওপর বট গাছ হয়ে আছেন। তিনি যেভাবে নির্দেশনা দেবেন, সেভাবেই দল চলবে।
তবে দলটির নীতি নির্ধারক পর্যায়ের নেতারা বলছেন, দলের নেতৃত্ব নিয়ে শুরু হওয়া বিরোধ কাটিয়ে উঠতে না পারলে দলটি অচিরেই ভাঙনের মুখে পড়বে, তৈরি হবে গ্রুপিং— এক গ্রুপে থাকবেন রওশন এরশাদ, অন্য গ্রুপে জি এম কাদের।

Leave a Reply

%d bloggers like this: