জোড়া সেঞ্চুরিতে সহজ জয় ভারতের

লিডসে অ্যাঞ্জোলো ম্যাথিউসের সেঞ্চুরিতে ভারতের সামনে ২৬৫ রানের লক্ষ্য রেখেছিল শ্রীলঙ্কা। এই লক্ষ্য পেরুতে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি ভারতকে। ৪৩.৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৬৫ রান করে জয় তুলে নিয়েছে তারা।
এই জয়ে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে এই মুহূর্তে টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছে ভারত। তবে এই অবস্থান নড়ে যেতে পারে যদি দিনের অপর ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়া জয় তুলে নেয়। সেক্ষেত্রে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে ফের টেবিলের শীর্ষে ফিরবে অস্ট্রেলিয়া।
এদিন ভারতের ওপেনিং জুটিতেই বলতে গেলে খেলা শেষ করে দেয়। রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুল মিলে দলকে এনে দেন ১৮৯ রান। এরপর আউট হয়ে যান রোহিত শর্মা।
তার আগে অবশ্য টানা তৃতীয় ও আসরের পঞ্চম সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি। দুইটি ছক্কা ও ১৪টি চারে সাজিয়ে ৯৪ বলে ১০৩ রান করেন ‘হিটম্যান’। বিশ্বকাপে এ নিয়ে মোট ৬টি সেঞ্চুরি হল রোহিতের। এর মধ্যে দিয়ে স্বদেশি কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারের বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ৬টি সেঞ্চুরি রেকর্ড ছুঁলেন তিনি। এই মুহূর্তে আসরের শীর্ষ রান সংগ্রাহকও রোহিত। তার মোট রান ৬৪১।
রোহিত শর্মার পাশাপাশি অন্য ওপেনার লোকেশ রাহুলও সেঞ্চুরি তুলে নেন আজ। শিখর ধাওয়ানের অনুপস্থিতিতে ভারতের ওপেনিং সামলানো রাহুল আজ করেছেন ১১১ রান। যা তার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ও বিশ্বকাপের প্রথম সেঞ্চুরি। লাসিথ মালিঙ্গার শিকার হওয়ার আগে ১১৮ বালে ১টি ছক্কা ও ১১টি চার মারেন তিনি।
রাহুল যখন আউট হন ভারতের দলীয় রান ২৪৪। অর্থাৎ জয় থেকে মাত্র ২১ রান দূরে তারা। সেই দূরত্ব টুকু প্রথমে ঋশভ পান্ত (৪) ও পরে হার্দিক পান্ডিয়াকে (৭) নিয়ে পাড়ি দেন অধিনায়ক কোহলি। ব্যক্তিগত ৩৪ রানে অপরাজিত থাকেন কোহলি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: