ডেঙ্গু কেড়ে নিলো আরও এক নারী চিকিৎসকের প্রাণ

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে তানিয়া সুলতানা (২৮) নামে আরও এক নারী চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে।
বৃহস্পতিবার রাত ১০ টায় ধানমন্ডিতে বেসরকারি আনোয়ার খান মর্ডান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ’তে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
নিহত তানিয়া সুলতানার স্বামী ব্যবসায়ী আমিনুল বাহার হিমন শুক্রবার দুপুর ১২টায় জানান, তানিয়া সুলতানা গত ২২ জুলাই থেকে জ্বরে ভুগছিলেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষায় তার ডেঙ্গু পজিটিভ আসে। ২৪ জুলাই তাকে রাজধানীর মগবাজারে কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গতকাল তাকে আনোয়ার খান মর্ডান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডাক্তার আব্দুল কাহার আকন্দের অধীনে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত রাত ১০টায় তার মৃত্যু হয়।
নিহত তানিয়া সুলতানা সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের ৪৭ ব্যাচের ছাত্রী ছিলেন। বর্তমানে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অনারারি চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
নিহতের স্বামী হিমন জানান, জ্বরের কারণে তানিয়ার এভাবে মৃত্যু হবে কখনও কল্পনাও করিনি। তার মৃত্যুতে আমার সাড়ে তিন বছরের ছেলেটি মা হারা হলো।
এ নিয়ে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মোট তিনজন চিকিৎসকের মৃত্যু হলো। এর আগে রাজধানীর উত্তরায় বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে নিগার নাহিদ দিপু নামে একজন নারী চিকিৎসক ও পরবর্তীতে গত কয়েকদিন আগে হবিগঞ্জ জেলার সিভিল সার্জন শাহাদাত হোসেন হাজরা মারা যান।

Leave a Reply

%d bloggers like this: