পাঁচ বছরে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে আটক প্রায় ১০ হাজার

২০১৪ সাল থেকে চলতি বছরের জুন পর্যন্ত ভারত ও বাংলাদেশ সীমান্তে প্রায় ১০ হাজার ৭৪৬ জন অনুপ্রবেশকারীকে আটক করা হয়েছে। এরমধ্যে শুধু পশ্চিমবঙ্গ সীমান্তেই আটক করা হয়েছে নয় হাজার ৭০২ জনকে। এমন তথ্য প্রকাশ করেছে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।
মঙ্গলবার লোকসভায় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই জানান, চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে ৩৬৯ জন, ২০১৮ সালে ৯০০ জন, ২০১৭ সালে ৯৯২ জন, ২০১৬ সালে এক হাজার ৮৭৫ জন, ২০১৫ সালে তিন হাজার ২৯৬ জন এবং ২০১৪ সালে দুই হাজার ২৬০ জন অনুপ্রবেশকারীকে আটক করা হয়েছে।
তুলামূলক ভাবে ২০১৪ সালের জানুয়ারী থেকে ২০১৯ সালের জুন পর্যন্ত অসম-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে ৬৫ জন অনুপ্রবেশকারীকে আটক করা হয়েছে। ওই একই সময়ে ত্রিপুরা সীমান্ত থেকে ৬৭৭ জন, মেঘালয়-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে ২৮১ জনকে আটক করা হয়েছে। সবচেয়ে কম মিজোরাম-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে আটক করা হয়েছে ২১ জন অনুপ্রবেশকারী।
প্রতিমন্ত্রী জানান, বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সীমান্ত বিএসএফ প্রতিনিয়ত টহল বা একাধিক পদক্ষেপ নিলেও অরক্ষিত ও দুর্গম সীমান্তের সুযোগ নিয়ে অজান্তেই কিছু অবৈধ অনুপ্রবেশের ঘটনা ঘটে চলেছে।
তিনি আরো জানান, গত পাঁচ বছরে ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের জন্য ১১৩৮.৪৮ কোটি রুপি ব্যায় করা হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে সীমান্ত রয়েছে ৪০৯৬.৭০ কিলোমিটার। এরমধ্যে ২৮০৩ কিলোমিটার সীমান্তে বেড়া নির্মাণের কাজ সম্পন্ন হয়েছে, আগামী ২০২০ সালের মধ্যে বাকি অংশের বেড়া দেওয়ার কাজও শেষ হয়ে যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: