পুরো ৫ হাজার টাকা না দেয়ায় মামলা নিলেন না এসআই!

পটুয়াখালীর বাউফল থানায় কামাল মোল্লা নামের এক ব্যক্তি মামলা করতে গেলে থানার এসআই ৫ হাজার টাকা দাবি করেন। পুলিশ সদস্যকে ওই ব্যক্তি ২ হাজার দিলেও মামলা নেননি পুলিশ। এমনই অভিযোগ কামালের। অভিযুক্ত ওই পুলিশ সদস্যের নাম এএসআইয়ের নাম শামিম হাওলাদার।
জানা যায়, উপজেলার মদনপুরা ইউনিয়নের দ্বিপাশা গ্রামের চানু মোল্লার স্ত্রী রুশিয়া বেগমের সঙ্গে একই বাড়ির সামছু মোল্লার জমির ভাগ-বাটোয়ারাসহ বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়ার টাকা নিয়ে গত শনিবার দুপরে ঝগড়া হয়।
ওই দিন বিকালে রুশিয়া বেগমের মেয়ে দ্বিপাশা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী তানিয়া আক্তার (১২) মাদ্রাসা থেকে পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে তাকে একা পেয়ে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে সামছু মোল্লা ও তার ছেলে মামুন।
এ সময় তানিয়ার চিৎকারে তার মা রুশিয়া বেগম ও বোন রুমা এগিয়ে এলে তাদেরকেও পিটিয়ে জখম করা হয়। আহত তানিয়া গত ছয়দিন পর্যন্ত বাউফল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।
ওই ঘটনায় আহত তানিয়ার ভাই কামাল মোল্লা বাউফল থানায় মামলা করতে গেলে এএসআই শামীম হাওলাদার তার কাছে ৫ হাজার টাকা চান। পরে পুলিশকে ২ হাজার টাকা দিলেও মামলা নেননি এএসআই শামীম হাওলাদার মামলা।
এ বিষয়ে এএসআই শামীম হাওলাদারের কাছে জানতে চাইলে বলেন, কামাল আমার সামনে আছে, সে তো এমন কথা বলেনি। পরে তাকে বলা হয়, ভিকটিম কামাল মোল্লার অভিযোগের অডিও রেকর্ড রয়েছে। তখন তিনি রাখি বলে ফোন কেটে দেন। পরে ওই পুলিশকে আর মোবাইলে পাওয়া যায়নি।
এ বিষয়ে বাউফল থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিষয়টি জেনে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: