প্রিয়া সাহার মন্তব্যের ইন্ধনদাতাদের খোঁজা হচ্ছে : কাদের

প্রিয়া সাহা কাদের ইন্ধনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে নালিশ করেছেন, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সোমবার দুপুরে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শেষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রিয়া সাহার বক্তব্যে কারো না কারো ইন্ধন রয়েছে, সরকার তা খতিয়ে দেখছে।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ডেঙ্গু ও বন্যাকে আমরা চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি। আর এই চ্যালেঞ্জ অনতিক্রম্য নয়। সমন্বিতভাবে চেষ্টা করে আমরা জয় করব।’
ডেঙ্গু মোকাবিলায় আওয়ামী লীগদলীয় ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়রের ব্যর্থতার বিষয়ে জানতে চাইলে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, তাঁরা এখন কাজ করছেন। প্রধানমন্ত্রী সিটি করপোরেশনের মেয়র, স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে প্রতিনিয়ত কথা বলেছেন।
এ সময় দুই মেয়রের অসংলগ্ন কথার বিষয়ে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কথাবার্তা স্লিপ হতে পারে। সবাই তো মানুষ।’
এ সময় যেকোনো বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী কথা না বলা পর্যন্ত প্রশাসন নিষ্ক্রিয় থাকে—সাংবাদিকদের এমন বক্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে সেতুমন্ত্রী বলেন, দেশে যেকোনো জরুরি বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী কথা বলেন, এবারও বলেছেন। এটাই স্বাভাবিক। তাঁর কথা সবাইকে এনকারেজ করে।
ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আওয়ামী লীগ তিন দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন করবে জানিয়ে সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আমাদেরও করণীয় আছে। শুধু সরকারি দায়িত্বের মধ্যে আমাদের কর্মকাণ্ড সীমিত করতে চাই না। দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার নির্দেশে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, তিন দিনব্যাপী জনসচেতনতামূলক কর্মসূচি পালন করব। পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালিত করব, যেটা সারা বাংলাদেশে ৩১ জুলাই বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চলবে। এরপর ২ ও ৩ আগস্ট সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করব।’
এ সময় ফেরিঘাটে একজন যুগ্ম সচিবের গাড়ির জন্য ফেরি আটকে থাকায় এক কিশোরের মৃত্যু প্রসঙ্গে বক্তব্য জানতে চাইলে সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যত দিন ক্ষমতায় আছেন, যে যত ক্ষমতাশালী কিংবা প্রভাবশালী হোন না কেন, সে আমাদের দলের হোক, সরকারের হোক, কেউ অন্যায় করে পার পাবেন না। প্রত্যেকটা বিষয়ে তদন্ত হচ্ছে, খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যদি কেউ অন্যায় করে, তাকে অবশ্যই শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে।’
‌উপজেলা নির্বাচনে বিদ্রোহীদের ব্যাপারে দলীয় অবস্থান জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আপনারা জানেন গত ওয়ার্কিং কমিটির মিটিংয়ে আমাদের সিদ্ধান্ত ছিল যে উপজেলা নির্বাচনে যারা সরাসরি বিদ্রোহ করেছে কিংবা বিদ্রোহে মদদ দিয়েছে, এ দুই ধরনের লোককে শোকজ, দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত রয়েছে। যেহেতু বিষয়টি সারা দেশে বিভিন্ন জেলা-উপজেলার, সেখানে আমাদের একটি টিমওয়ার্ক আছে। তাদের অভিযোগগুলো আমাদের আট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আটটি টিমের কাছে গেছে। বন্যার কারণে আমরা যাচাই-বাছাইয়ের জন্য সময় নিচ্ছি। প্রক্রিয়াটা কোনোভাবেই স্থগিত বা বাদ হয়ে যাচ্ছে, সেটা আসলে সত্য নয়। বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে, প্রক্রিয়া শেষ হলে আমরা ইমপ্লিমেন্টেশনে যাব।’
সংবাদ সম্মেলনের আগে আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা হয়। সভায় লন্ডনে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিওকলের মাধ্যমে যোগ দেন। তিনি প্রায় ২৫ মিনিট দলীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সামগ্রিক বিষয়ে আলাপ-আলোচনা করেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: