বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সমর্থন করে না আ.লীগ : কাদের

আওয়ামী লীগ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সমর্থন করে না বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।
বরগুনার নয়ন বন্ডের নিহতের ঘটনা বিচারবহির্ভুত হত্যাকাণ্ড বলে হাইকোর্ট যে পর্যবেক্ষণ দিয়েছে সেখানে এই হত্যাকাণ্ড সমর্থনযোগ্য নয় বলা হয়েছে।
এই বিষয়টিকে আওয়ামী লীগ কীভাবে দেখছে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সরকার বা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এটাকে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড বলেনি। এখানে এনকাউন্টারের বিষয়টি বলা হয়েছে। ক্রসফায়ার আর এনকাউন্টার এক বিষয় নয়। যেটা হয়েছে সেটা নিয়ে স্বরাষ্টমন্ত্রী কথা বলেছেন।’
গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধিতে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের অসন্তোষের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির ব্যাপারে আমি আগেও কথা বলেছি, যৌক্তিক কিছু কারণ এখানে রয়েছে। দামের সমন্বয় করার জন্য এটা অনস্বীকার্য। এটা পুনর্বিবেচনা করবে কিনা এটা সরকারের উচ্চ পর্যায়ের বিষয়।’
তিনি বলেন, ‘তবে আমার মনে হয় না এটা পুনর্বিবেচনার কোনো সুযোগ আছে। কারণ এখনও ভর্তুকি দিতে হচ্ছে প্রচুর। এই কারণেই মুল্যবৃদ্ধির মাধ্যমে সমন্বয় করা হয়েছে। এরপরও কিন্তু সরকারকে ভর্তুকি গুণতে হবে অনেক বেশি। এই বিষয়টির যৌক্তিক কারণ রয়েছে। কাজেই সবাইকে এটা মেনে নেওয়ার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি। এ বিষয়ে ১৪ দলের মধ্যে সবাই একমত তা নয়। ১৪ দলের মধ্যে যারা এই মূল্যবৃদ্ধিকে অযৌক্তিক বলছে, আমি তাদেরকে যৌক্তিক বিষয়গুলো অনুধাবনের জন্য অনুরোধ করছি।”
চীন সফর নিয়ে বিএনপির নেতিবাচক মন্তব্যের প্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘যে বৈঠক হয়েছে সেটার সাথে চীনের প্রধানমন্ত্রীর ও রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। চুক্তি হয়েছে উন্নয়নের জন্য। উন্নয়ন তাদের চোখে পড়ে না। এই জন্য ফখরুল সাহেবদের পরামর্শ দিচ্ছি, ফখরুল সাহেবদের পাওয়ারের চশমা পরার জন্য।’
প্রধানমন্ত্রীর চীন সফরে কোন বিষয়টা বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সফরে চীনের প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পেয়েছে রোহিঙ্গা ইস্যু। মিয়ানমারকে চাপ দেওয়ার ইস্যুটি ছিল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এখন তাদেরকে প্রেসার দেওয়ার ব্যপারে চীনও আশ্বাস দিয়ে বলেছে, তারা মিয়ানমারকে চাপ দিবে, বোঝাতে চেষ্টা করবে। মিয়ানমার যেন তাদের নাগরিকদের সন্মানের সঙ্গে ফিরিয়ে নিয়ে যায়।’
শেখ হাসিনা হত্যা চেষ্টা মামলার রায় নিয়ে বিএনপির বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কোন মামলার রায় বিএনপির বিরুদ্ধে গেলে তারা এই রায়কে বানোয়াট বলে, সরকারের হস্তক্ষেপ বলে। এটা তাদের গতানুগতিক পর্যবেক্ষণ। এখানে নতুনত্ব কিছু নেই। এবারও ব্যতিক্রম কিছু ঘটে নি।’

Leave a Reply

%d bloggers like this: