মশা নিয়ন্ত্রণে ভ্রাম্যমাণ আদালত

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোধে ঢাকা উত্তর সিটি করেপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ারের নেতৃত্বে শুক্রবার দুপুর ১২টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত রাজধানীর বনানী এলাকায় অভিযান ও ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।
অভিযানে বনানী এলাকার ৪টি ভবন নির্মাণ প্রতিষ্ঠানকে স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন, ২০০৯ অনুযায়ী মোট ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এসব প্রতিষ্ঠানের নির্মাণাধীন ভবনের বিভিন্ন স্থান স্যাঁতস্যাঁতে ও অপরিচ্ছন্ন অবস্থায় পাওয়া যায়। এছাড়া এসব স্থানে ৩ দিনের বেশি জমে থাকা পানিও পাওয়া যায়; যা এডিস মশার উর্বর প্রজননক্ষেত্র। প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে বনানী ১২ নম্বর সড়কের ‘ভেঞ্চুরা প্রোপার্টিজ’, ১৭ নম্বর সড়কের ‘আবুল খায়ের গ্রুপের সাইট অফিস’, ৬ নম্বর সড়কের একটি ব্যক্তিগত মালিকানাধীন নির্মাণাধীন বাড়ি, এবং ১১ নম্বর সড়কের ‘ডমিনো’। ডমিনোকে ১ লাখ টাকা এবং অন্য ৩টি প্রতিষ্ঠানকে ৫০ হাজার টাকা করে মোট ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
একই সাথে প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাদের নির্মাণাধীন ভবনগুলো ১২ ঘণ্টার মধ্যে পরিষ্কার করে ছবিসহ ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে জানানোর নির্দেশ দেয়া হয়।
ডিএনসিসির অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান ও ভ্রাম্যমাণ আদালত অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: