মহিষের সিংয়ে তেল মালিশের ব্যয় ১৬ লাখ রুপি!

একাধিক পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির কারণে বর্তমানে জেল খাটছেন ভারতের আরজেডি সুপ্রিমো লালুপ্রসাদ যাদব। সম্প্রতি সেই পশুখাদ্য কেলেঙ্কারি ঘিরে লালুর অস্বস্তি বাড়িয়ে বিহারের নীতিশ কুমারের সরকার তুলে ধরেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।
বিহার বিধানসভায় অধিবেশন চলাকালীন এক আলোচনায় সরকারের তরফ থেকে পশুখাদ্য কেলঙ্কারির প্রেক্ষাপটে জানানো হয়, ৪৯ হাজার ৯৫০ লিটার সরিষার তেল শুধু মহিষের সিং মালিশ করতে ব্যবহার করা হয়েছে। যার বর্তমান বাজারমূল্য ১৬ লাখ রুপি।
১৯৯০ থেকে ১৯৯৬ সালের দীর্ঘ সময়জুড়ে এই পরিমাণ অর্থে কেনা হয়েছে দামি সরিষার তেল, যা দিয়ে মহিষের সিং মালিশ করা হয়েছে দিনের পর দিন। এমন খরচের হিসাব দিয়েছিলেন তৎকালীন ‘হটওয়ার’ দুগ্ধ সংস্থার মালিক। আর এই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন তৎকালীন বিহারের বেশ কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তাও। এমনই দাবি করা হয়েছে নীতিশ কুমার সরকারের তরফ থেকে।
বিহারের চাইবাসা, দুমকা, জামশেদপুর, গুমলা, পাটনা জেলার ৯৫৯টি ভেড়া, পাঁচ হাজার ৬৬৪টি শূকর, ৪০ হাজার ৫০৪টি মুরগি, এক হাজার ৫৭৭টি ছাগলের জন্য সেই সময় কেনা হয়েছিল খাবার। যার খরচ হয় ২৫৩.৩৩ কোটি রুপি। অথচ সরকারি তথ্য অনুযায়ী ১০.৫৩ কোটি রুপি এতে খরচ হওয়ার কথা।
বিহার সরকারের হিসাব বলছে, পশুখাদ্যে সেই সময় ১০ শতাংশ হলুদ ভুট্টা মেশানোর কথা ছিল। সেই জায়গায় ১১৫ গুণ বেশি ভুট্টা। যার খরচ হয় ১৫৪.৭২ কোটি রুপি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: