মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের যুক্তরাষ্ট্র সফরে নিষেধাজ্ঞা

মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ‘জাতিগত নিধনের’ অভিযোগে সেদেশের সেনাপ্রধান ও তিন শীর্ষ কর্মকর্তার যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।
দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দুই বছর আগে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর সহিংস আচরণ করেছে মিয়ানমার এমন প্রমাণ পাওয়ার পরই সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইংয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হল।
বাকি তিন শীর্ষ কর্মকর্তা হলেন সেনাবাহিনীর ডেপুটি কমান্ডার ইন চিফ সো উইন, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল থান ও এবং ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আং আং। এই চারজনের পরিবারের সদস্যরাও যুক্তরাষ্ট্র যেতে পারবেন না।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এক বিবৃতিতে বলেন, ‘আমরা উদ্বিগ্ন যে মিয়ানমার সরকার মানবাধিকার লঙ্ঘন ও নির্যাতনের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।’
মিন অং হ্লাইং রোহিঙ্গা গণহত্যার মূল হোতা হিসেবে পরিচিত। ২০১৭ সালে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বেপরোয়া অভিযানের মুখে রাখাইন থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা। এই নির্যাতনের ঘটনাকে গণহত্যা আখ্যা দিয়েছে জাতিসংঘ।

Leave a Reply

%d bloggers like this: