সমুদ্রবন্দরে সতর্কতা বহাল, পাহাড়ে ভূমিধসের শঙ্কা

মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে দেশের সমুদ্রবন্দরে যে সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছিল তা বহাল রেখেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এছাড়া ভারী বর্ষণের কারণে পাহাড়ি এলাকায় ভূমিধসের শঙ্কা রয়েছে বলে সতর্ক বার্তায় জানিয়েছে সংস্থাটি।
আবহাওয়াবিদ মো. রুহুল কুদ্দুছ জানান, বাংলাদেশের উপর মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় রবিবার সকাল ১০টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল এবং চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪ থেকে ৮৮ মিলি মিটার ) থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। এতে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধসের আশংকা রয়েছে।
আবহাওয়াবিদ জানান, মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় থাকায় আজ ও আগামীকাল কম-বেশি সারাদেশে বৃষ্টি হতে পারে। আগামী মঙ্গলবার থেকে সারাদেশে বৃষ্টিপাত কিছুটা কমতে পারে।
রুহুল কুদ্দুছ জানান, আগামী ৪৮ ঘণ্টা বৃষ্টিপাতের প্রবণতা একই রকম থাকবে। তবে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে।
তিনি জানান, সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ১৩২৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ সময় চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড ১০৩ মিলিমিটার, টেকনাফে ১০১ এবং বরিশালের খেপুপাড়ায় ১০২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।
সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট, ঢাকা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে।
আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, ময়মনসিংহ, সিলেট, টাঙ্গাইল, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা এবং কক্সবাজার অঞ্চলগুলোর উপর দিয়ে দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: