সেইসব এমপি-মন্ত্রীদের শাস্তি পেতেই হবে: কাদের

দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে সদ্য সমাপ্ত উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেয়া বিদ্রোহী প্রার্থীদের পক্ষে যেসব এমপি-মন্ত্রীরা প্রচার-প্রচারণা চালিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
তিনি বলেন, ‘যে সকল এমপি-মন্ত্রীরা উপজেলা নির্বাচনে দলের সিদ্বান্তের বাহিরে গিয়ে বিদ্রোহীদের পক্ষে কাজ করেছেন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাদের শাস্তি বিভিন্ন রকম হতে পারে। একাদশ পরবর্তী তাদেরকে এমপি-মন্ত্রী করা হলো না। তাদেরকে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হলো না- এগুলোও শাস্তির পর্যায়ে পড়ে। শাস্তি মানে কি শুধু দল থেকে বহিষ্কার করা? অথচ শাস্তিস্বরূপ ওইসব এমপি-মন্ত্রীদের কম গুরুত্বপূর্ণ পদ দেয়া হতে পারে। তাদের গুরুত্ব খর্ব করা হতে পারে। এবিষয়ে ওয়ার্কিং কমিটির মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’
রবিবার (৭ জুলাই) ধানমণ্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।
অপর এক প্রশ্নের জবাবে দলের সিদ্ধান্তের বাহির যাওয়া বিদ্রোহী নেতাদের উদ্দেশ্যে কাদের বলেন, ‘স্থানীয় নির্বাচনে যারা দলের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিল তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ডিসিপ্লিন ব্রেক করার আসকারা পেলে এর প্রবণতা বাড়ে। তাই আমরা এর লাগাম টেনে ধরতে চাই। এ ব্যাপারে আমরা আমাদের নেত্রীর (শেখ হাসিনা) সঙ্গে আলাপ করেছি।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যথাসময়ে আমাদের জাতীয় সম্মেলন করার লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছি। সম্মেলন করার ব্যাপারে কোনও ঘাটতি নেই।’
সড়কমন্ত্রী বলেন, ‘আজকের সম্পাদকমণ্ডলীর সভায় আগস্ট মাসের কর্মসূচি, তৃণমূলে দলের সাংগঠনিক প্রস্তুতির বিষয়ে এবং দলকে গতিশীল ও শক্তিশালী করার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সম্মেলনের পূর্বে আওয়ামী লীগের সদস্য সংগ্রহ অভিযান ২১ জুলাই শুরু হবে। তবে এর আগে এ বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করা হবে।’
এসময় উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, একে এম এনামুল হক শামীম, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণবিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, আইনবিষয়ক সম্পাদক শ ম রেজাউল করিম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, উপ-দফতর সম্পাদক ব্যরিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ও কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মারুফা আক্তার পপি প্রমুখ।