জাতীয় দলে ৩ মাস নিষিদ্ধ মেসি-৫০ হাজার ডলার জরিমানা

কোপা আমেরিকা চলাকালীন লতিন আমেরিকান ফুটবল কনফেডারেশনের (কনমেবল) কড়া সমালোচনা করে বড় শাস্তির মুখে পড়েছেন লিওনেল মেসি। সংস্থাটিকে দুর্নীতিবাজ বলে প্রকাশ্য সমালোচনা করায় জাতীয় দলে তিন মাসের নিষেধাজ্ঞার সঙ্গে ৫০ হাজার ডলার জরিমানা করা হয়েছে আর্জেন্টিনা অধিনায়ককে।
শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে লাতিন ফুটবলের অভিভাবক সংস্থাটির দেয়া এই শাস্তির সময়টাতে কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারবেন না মেসি। শাস্তির বিরুদ্ধে আগামী ৭ দিনের মধ্যে আত্মপক্ষসমর্থন করে আপিল করতে পারবেন এলএম টেন।
গত জুন-জুলাইতে ব্রাজিলের মাটিতে হওয়া কোপা আমেরিকার আসরে চিলির বিপক্ষে তৃতীয়স্থান নির্ধারণী ম্যাচে বিতর্কিত লাল কার্ডে মাঠ ছাড়তে হয় মেসিকে। আর্জেন্টিনা অবশ্য ২-১ গোলে জিতে তৃতীয় হয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করে। ম্যাচের পর পুরস্কার বিতরণীর মঞ্চে যাননি মেসি। তারপরই সংবাদ মাধ্যমের সামনে ক্ষোভে ফেটে পড়েন আলবিসেলেস্তে অধিনায়ক।
তার আগে ব্রাজিলের বিপক্ষে সেমিফাইনালের ম্যাচে বেশকিছু সিদ্ধান্ত আর্জেন্টিনার বিপক্ষে যাওয়ায় কনমেবল স্বাগতিকদের শিরোপা দিতে পক্ষপাতিত্ব করছে বলে অভিযোগ তুলে সমালোচনার মুখে পড়েন। ওই ম্যাচে আর্জেন্টিনার দুটি পেনাল্টি সিদ্ধান্তের আবেদন নাকচ করে দিলে ম্যাচ শেষে প্রকাশ্যে রেফারিং ও কনমেবলের উপর ক্ষোভ ঝাড়েন মেসি।
আসছে সেপ্টেম্বরে চিলি ও মেক্সিকো, অক্টোবরে জার্মানির মতো বড় দলগুলোর সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ খেলার সূচি নির্ধারিত আছে আর্জেন্টিনার। নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলে সেই ম্যাচগুলো খেলতে পারবেন না মেসি। তবে ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে খেলতে পারবেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: