পাকিস্তানে খেলতে রাজি নন বিদেশি ক্রিকেটাররা!

আগামী বছর ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) শুরু হচ্ছে। এবার পুরো আসরই পাকিস্তানে আয়োজন করতে চায় দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে, দীর্ঘ সময় পাকিস্তানে থাকতে রাজি নন বিদেশি ক্রিকেটাররা।
তাই ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোও পুরো টুর্নামেন্ট পাকিস্তানে আয়োজনে রাজি নয়। তারা চাচ্ছে আগামী বছর পিএসএলের কিছু ম্যাচ সংযুক্ত আরব আমিরাতে আয়োজন করতে। বর্তমান অবস্থায় পুরো টুর্নামেন্ট পাকিস্তানে আয়োজন সম্ভব নয়।
অবশ্য এ ব্যাপারে পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানি বলেন, ‘ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে পিএসএলের পুরো আসর পাকিস্তানে আয়োজনের জন্য অনুমোদন নিয়েছি। এখন পর্যন্ত কোনো দল সমস্যার কথা বলেননি। অন্য কোথাও ম্যাচ সরিয়ে নেওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।’
তবে বিদেশি খেলোয়াড়রা যে পুরো আসর পাকিস্তানে থাকতে রাজি নয় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বোর্ডের একটি সূত্র।
২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকেই পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট একরকম হচ্ছে না বললেই চলে। আফগানিস্তান ও জিম্বাবুয়ে ছাড়া এ সময়ে পাকিস্তানে অন্য কোনো দল ক্রিকেট খেলতে যায়নি।
তবে ২০২০ সালের এশিয়া কাপ আয়োজন করতে যাচ্ছে তারা। এই কিছুদিন আগে সিঙ্গাপুরে এসিসির এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
২০২০ সালের অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় বসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এর মাসখানেক আগেই হতে পারে এশিয়া কাপ। অবশ্য এশিয়া কাপের তারিখ এখনো চূড়ান্ত হয়নি।
২০১৫ সালে জিম্বাবুয়ে দলের পাকিস্তান সফরের সময় গাদ্দাফি স্টেডিয়ামের মাত্র ৮০০ মিটার দূরে বোমা বিস্ফোরণে মারা যায় দুজন। সে দেশে গিয়ে তাই ক্রিকেট খেলাটা খুব একটা নিরাপদ মনে করছে না কোনো ক্রিকেট দলই।

Leave a Reply

%d bloggers like this: