বঙ্গবন্ধুর পলাতক ৬ খুনিকে ফাঁসিতে ঝুলাবে ডাকসু!

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত ৬ পলাতক আসামিকে প্রতীকী ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)। আগামী মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) বিকেল ৫ ঘটিকায় টিএসসির পায়রা চত্বরে এটি বাস্তবায়ন করা হবে।
রবিবার (৪ আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টায় ডাকসুর স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক সাদ বিন কাদের চৌধুরীর স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কর্মসূচির ঘোষণা করা হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট একদল বিপদগামী সেনা সদস্য ধানমণ্ডির ৩২ নাম্বার বাড়িতে হানা দিয়ে আত্মীয়-স্বজনসহ তৎকালীন রাষ্ট্রপতি স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করে।
২০১০ সালের ২৮ জানুয়ারি কার্যকর হয় ফারুক রহমান, মহিউদ্দীন আহমেদসহ পাঁচ খুনির ফাঁসি। এ মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত অপর সাতজন বিদেশ পালিয়ে গেছেন। দণ্ডিত একজন আব্দুল আজিজ পাশা পলাতক অবস্থায় জিম্বাবুয়ে মারা গেছেন।
এতে আরও বলা হয়, ‘ইতিহাসের জগন্যতম ও নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডের ৪৪ বছর পার হলেও এখনও তাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়নি।যেটা আমাদের জন্য লজ্জার ও অপমানের।’
বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি সম্মান জানাতে আগামী ৬ আগস্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির পায়রা চত্বরে বিকেল ৫ ঘটিকায় রায় কার্যকর না হওয়া ছয় খুনিকে প্রতীকী ফাঁসিতে ঝুলানো হবে।
এরপর একটি আলোচনা সভা এবং টিএসসি প্রাঙ্গণে ‘পলাশী থেকে ধানমণ্ডি ৩২’ চলচ্চিত্রটি প্রদর্শিত হবে বলেও জানানো হয়। পুরো অনুষ্ঠানটি ডাকসুর উদ্যোগে সম্পন্ন করা হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: