চকরিয়ায় প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে, ১২ দিনের মাথায় লাশ উদ্ধার

চকরিয়ায় বিয়ের ১২ দিনের মাথায় আবদুল হামিদ ছোটন (২৮) নামের এক যুবকের ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
সোমবার দিবাগত রাতে সাহারবিল ইউনিয়নের রামপুর চিংড়ীঘরের বেড়ি বাঁধের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত ছোটনের শরীরের বিভিন্ন অংশে গুরুতর জখমের চিহৃ রয়েছে। সে একই ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বইল্যাপাড়া এলাকার মো. দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। স্থানীয় লোকজন জানান, নিহত যুবক ছোটন বিগত ১২দিন পূর্বে তার এলাকার স্থানীয় এক তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করেন। পরে পরিবারের অজান্তে পালিয়ে বিয়ে করেন যুবক হামিদ। বিয়ের পরে বাড়িতেও ফিরেন তারা।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে রামপুর চিংড়িঘের এলাকা থেকে আবদুল হামিদকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। তার শরীরের বিভিন্ন অংশে গুরুতর বেশ কয়েকটি জখমের চিহৃ রয়েছে। ওসি আরও বলেন, রাতেই নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। কী কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা উদঘাটন এবং ঘটনার সাথে জড়তিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ কাজ করছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: