নাগরিক হওয়ার আবেদন করতে পারবেন না ভারতের মুসলিমরা

আলোচিত ও বিতর্কিত ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধন বিল অনুমোদন দিয়েছেন দেশটির মন্ত্রিসভা। বুধবার (৪ ডিসেম্বর) নরেন্দ মোদির হিন্দ্যুত্ববাদী বিজেপি সরকারের মন্ত্রিসভা এই অনুমোদন দেয়।
এতে নাগরিক হওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন ৬টি ধর্মের লোক, কিন্তু আবেদন করতে পারবেন না শুধুমাত্র মুসলিমরা।
বিলটি পাস হলে সেখানে অবস্থান করা বাংলাদেশ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি এবং খ্রিস্টান ধর্মের অবৈধ অভিবাসীদের নাগরিক হওয়ার অনুমোদন দেবে বিলটি।
সংবাদ সম্মেলনে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রখাশ জাভেদেকার বলেন, ‘নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়েছে এবং সংষদে উপস্থাপনের পরে এই বিলটি নিয়ে একটি বিতর্ক হবে।’
আগামী সপ্তাহে দেশটির পার্লামেন্টে বিলটি উত্থাপন করা হতে পারে। মুসলমানদের বাদ দেয়ায় এই বিলটিকে দেশের ধর্মনিরপেক্ষ নীতির বিরোধী বলে সমালোচনা করেছে বিরোধী দলগুলো।
ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) তাদের আগের মেয়াদে লোকসভায় এই বিলটি পাস করেছিল। তবে আন্দোলনের কারণে রাজ্যসভায় বিলটি পাস হয়নি। বিগত লোকসভা ভেঙে দেয়ার পরে বিলটি বাতিল হয়ে যায়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: