সিদ্ধেশ্বরীতে নিহত তরুণী পুলিশ অফিসারের মেয়ে, ধর্ষণের আলামত

রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরীতে উদ্ধার হওয়া নিহত তরুণীর পরিচয় মিলেছে। তার নাম রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা (২১)। তিনি স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।
এদিকে তরুণীকে ধর্ষণের আলামত পেয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ। বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ বৃহস্পতিবার বিকেলে মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করেন।
বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) রাতে ব্রেকিংনিউজকে রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম নিহত তরুণীর পরিচয় নিশ্চিত করেন।
তিনি জানান, নিহতের নাম রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা। তার বাবার নাম রোকন উদ্দিন। তিনি হবিগঞ্জ এলাকায় পুলিশ ইন্সপেক্টর হিসেবে কর্মরত।
তিনি আরও জানান, রুম্পার বাড়ি ময়মনসিংহ জেলায় হলেও বর্তমানে রাজধানীর মালিবাগ শান্তিবাগ এলাকায় থাকতেন। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে।
এদিকে ঢামেকের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ জানান, বেলা ৩টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে ওই তরুণীর মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করা হয়। ময়নাতদন্তে তাকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। বিষয়টি আরও নিশ্চিত হওয়ার জন্য মৃতদেহ থেকে হাই ভেজাইনাল সোয়াব, ভিসেরা, রক্ত সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট এলে বিস্তারিত জানা যাবে।
বুধবার (৪ নভেম্বর) রাত পৌনে ১১টার দিকে রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরীতে দুটি বহুতল ভবনের মাঝের ফাঁকা স্থান থেকে ওই তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত তরুণীর হাত, পা, কোমরসহ শরীরের কয়েক জায়গায় ভাঙা ছিল।

Leave a Reply

%d bloggers like this: