কিম জং-উন মারা গেছেন, দাবি হংকং টিভির!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
অবশেষে প্রয়াত হলেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন! এমনই বিস্ফোরক দাবি করেছে হংকং টিভি। যদিও উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় কোনো মাধ্যম এখনও এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেনি। কিছুই জানানো হয়নি তাদের নেতার শারীরিক অবস্থা।
কিম জং উনের শারীরিক অবস্থা নিয়ে ইথারে যখন নানা খবর ছড়িয়ে পড়ছে তখন উত্তর কোরিয়ায় একদল বিশেষজ্ঞ ডাক্তারকে পাঠিয়েছে চীন। কি জং উনের শারীরিক অবস্থা তারা নির্ধারণ করবেন বলে শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) রিপোর্ট করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
দু’সপ্তাহ আগে অস্ত্রোপচার হয় কিম জং উনের। তারপর থেকেই মধ্য তিরিশের নেতার শরীর ভালো যাচ্ছে না বলে খবর। এরমধ্যেই দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদমাধ্যমের তরফে জানানো হয়, সংকটজনক অবস্থায় রয়েছেন কিম জং উন।
এমন সময়েই হংকং টিভিতে সম্প্রচারিত, ‘প্রয়াত হয়েছেন কিম জং উন।’ এমনকী উত্তর কোরিয়ার শাসকের মৃতদেহ শায়িত রয়েছে, এই ছবিও দেখা গেছে হংকং টিভিতে। যদিও এর সত্যতা এখনও যাচাই হয়নি। পরিস্থিতির উপর নজর রাখলেও কিমের প্রয়াণ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেনি ওয়াশিংটন বা ট্রাম্প প্রশাসন।
এ বিষয়ে নিউজউইককে পেন্টাগনের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, উত্তর কোরিয়ার নেতার শারীরিক অবস্থা নিয়ে যেসব খবর প্রকাশ পাচ্ছে তার ওপর যুক্তরাষ্ট্র অব্যাহতভাবে নজর রেখে চলেছে। এই সময়ে কিম জং উন মারা গেছেন এমন কোনো নিশ্চয়তা অফিসিয়াল চ্যানেল থেকে নিশ্চিত হওয়া যায় নি। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই কর্মকর্তা আরো বলেন, ঐতিহাসিক আদর্শে এখনও উত্তর কোরিয়ার সামরিক বাহিনী প্রস্তুত।
প্রসঙ্গত, অত্যধিক ধূমপান, স্থূলতা-সহ বেশ কিছু সমস্যা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই ভুগছিলেন কিম জং উন। তার উপর ছিল মাত্রাতিরিক্ত কাজের চাপ। এর জেরেই হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচার এবং তারপর থেকেই গুরুতর অসুস্থ কিম জং উন। গত দু’সপ্তাহের বেশি সময়ে তাকে জনসমক্ষে দেখা যায়নি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: