ব্রাজিলে ৭০০ কিলোমিটার দীর্ঘ বজ্রপাত!‌

Stay Home. Stay Safe. Save Lives.
#COVID19

প্রকৃতির রোষ যেন কমতেই চাইছে না। একের পর এমন সব কাণ্ড ঘটছে, যা অবাক করে দেওয়ার মতো। সম্প্রতি রাষ্ট্রসংঘের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে, গতবছর ব্রাজিলে একটি বজ্রপাত হয়েছিল, যার দৈর্ঘ্য ছিল ৭০০ কিলোমিটার। যা বিশ্বরেকর্ড। এতবড় মাপের ভয়ঙ্কর বজ্রপাত এর আগে কখনই হয়নি।
World Meteorological Organisation–এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে দীর্ঘতম বজ্রপাতের দুটি রেকর্ড হয়েছে, একটি ব্রাজিলে একটি আর্জেন্টিনায়। ২০১৯ সালে হওয়া এই বজ্রপাতের খবর এখন প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। সেখানে বলা হয়েছে, এই ‘‌মেগা ফ্ল্যাশ’‌ গতবারের দীর্ঘতমটির তুলনায় দ্বিগুণের বেশি বড়।
প্রায় ১৬ সেকেন্ড ধরে টানা এই বজ্রপাত চলেছে। যার দৈর্ঘ্য মেপে দেখা গিয়েছে ৭০০ কিলোমিটারের কাছাকাছি। ৩১ অক্টোবর ঘটে যাওয়া ঘটনা নিয়ে গবেষণার পর এই সিদ্ধান্তে এসেছেন বিজ্ঞানীরা।
এর আগের ঘটনাটি ঘটেছিল ২০০৭ সালে, যে সময়ে বজ্রপাতের দৈর্ঘ্য ছিল ৩২১ কিলোমিটার। সেটি ঘটেছিল আমেরিকার ওকলাহামা প্রদেশে। ৭.‌৭৪ সেকেন্ড ধরে সেটি চলেছিল। আবহাওয়াবিদদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এটি একেবারে অত্যাশ্চর্য একটি ঘটনা। প্রকৃতির ক্ষমতা কতদূর, তা নিয়ে বিজ্ঞানীদের ধারণা পাল্টে দিচ্ছে অনেক ঘটনাই। এই ঘটনা যেন সেই বিষয়েরই একটি ইঙ্গিত।
এর আগে ১৯৯৪ সালে একটি বজ্রপাতের আঘাতে মিশরে মৃত্যু হয়েছিল ৪৬৯ জনের। বিজ্ঞানীরা বলেছেন, যদি বজ্রপাতের আলো আর শব্দের মধ্যে ৩০ সেকেন্ডের কম সময় থাকে, তাহলে ঘরের ভিতরে থাকায় শ্রেয়। কম করে ৩০ মিনিট পর বাড়ির বাইরে বের হওয়া উচিত বলে মনে করছেন তারা।

Leave a Reply

Stay Home. Stay Safe. Save Lives.
#COVID19

%d bloggers like this: