ইসলামাবাদে অনুমোদনহীন পশুর হাট, রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

Stay Home. Stay Safe. Save Lives.
#COVID19

বিশেষ প্রতিবেদক||

কক্সবাজার সদর উপজেলার ইসলামাবাদ ইউনিয়নে অনুমোদনহীন ও অবৈধ পশুর হাট বসানো হচ্ছে। ঈদগাহ বাস ষ্টেশনের ৪ কিলোমিটার উত্তরে শাহ ফকির বাজার নামক স্হানে প্রতিদিন বসছে জমজমাট এ পশুর হাট। আর এতে মূল্যবান রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছে সরকার।
এলাকাবাসী জানান, আসন্ন কোরবানীর ঈদ উপলক্ষে প্রায় ১৫ দিন আগে থেকে সেখানে পশুর হাট বসিয়ে আসছে স্হানীয় একটি সিন্ডিকেট। আগে সপ্তাহের দুই দিন শুক্রবার ও সোমবার বাজার বসলেও ঈদ সমাগত হওয়ায় এখন প্রতিদিনই বাজার বসছে। এ বাজারে চোরাই গরু বিক্রি হওয়ারও অভিযোগ উঠেছে। এর ফলে এলাকায় গরু চুরি বৃদ্ধি ও আইন শৃংখলা পরিস্হিতি অবনতি হচ্ছে।

ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র সংলগ্ন স্হানে জমে উঠা উক্ত পশুর হাটে প্রতিদিন শত শত গরু-ছাগল- মহিষ বিক্রি হচ্ছে। বিক্রি হওয়া পশুর মালিকদের থেকে হাসিলের নামে লক্ষ লক্ষ টাকা চাঁদা আদায় করছে বাজার আয়োজনকারীরা। আর এতে মূল্যবান রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার।

ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের দালাল হিসাবে পরিচিত জনৈক ফিরোজ এই পশুর বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে বলে জানা গেছে।
প্রায় পক্ষকালব্যাপী চলে আসা অনুমোদনহীন এই পশুর হাট থেকে ইতোমধ্যেই লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে দালাল ফিরোজ ও তার সিন্ডিকেট।
পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পাশেই আলীশান অফিস স্হাপন করে দালালীপনা ও পশুর হাট নিয়ন্ত্রণ করছে দালাল ফিরোজ।
উপরোক্ত পশুর হাট বৈধ কিনা জিজ্ঞেস করলে এর অনুমোদন আছে বলে দাবী করে দালাল ফিরোজ।
সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদ উল্লাহ মারুফ ফোন রিসিভ না করায় এ ব্যাপারে বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আশরাফুল আফসার বলেন, অনুমোদনহীন পশুর হাট স্হাপনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্হা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Stay Home. Stay Safe. Save Lives.
#COVID19

%d bloggers like this: