‘নিরীহ পশু নয়, প্রয়োজনে নিজের সন্তানকে কোরবানি দিন’

Stay Home. Stay Safe. Save Lives.
#COVID19

ভারতের উত্তর প্রদেশের বিজেপি বিধায়ক নন্দকিশোর গুর্জর বলেছেন, ‘ঈদে কোরবানি দিতে হলে নিজের সন্তানকে কোরবানি দিন।’ ভারতে আগামী (শনিবার) ঈদুল আজহা পালিত হবে। করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যের মুসলিমরা যখন কীভাবে ঈদের নামাজ পড়বেন, কীভাবে কোরবানি করবেন তা নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে রয়েছেন, তখন বিজেপি বিধায়কের তীব্র আপত্তিকর ও বিতর্কিত মন্তব্য প্রকাশ্যে এল।

গাজিয়াবাদের লোনি কেন্দ্রের বিজেপি বিধায়ক নন্দকিশোর গুর্জরের দাবি, করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এ বছর ঈদে পশু কোরবানি দেওয়া উচিত নয় মুসলিমদের। আর যদি কোরবানি দিতে হয়, তাহলে নিজের সন্তানকে দিন। নিরীহ পশুগুলোকে মারবেন না। একটিও যাতে কোরবানি না হয় সেজন্য তিনি গাজিয়াবাদ প্রশাসনকে জানাবেন বলেও বিধায়ক নন্দকিশোর গুর্জর মন্তব্য করেন।

বিজেপি বিধায়ক নন্দকিশোর গুর্জর বলেন, ‘যেভাবে সনাতন ধর্মে এখন আর বলি দেওয়া হয় না। নারকেল ফাটিয়ে আমরা বলিদানের রীতি পালন করি। সেভাবেই মুসলিমদের আমি বলব, করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এ বছর কোরবানি বন্ধ রাখুন। অন্যথায় করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। ঈদে কাউকে কোরবানি দিতে দেখা গেলেই কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর যদি কেউ ভেবে থাকেন, তিনি কোরবানি দেবেনই তাহলে নিজের প্রিয় জিনিস, নিজের সন্তানকে দিন। আমাদের কোনও আপত্তি নেই।’

এরআগে করোনা ও লকডাউন পরিস্থিতির মধ্যে উত্তর প্রদেশের সমাজবাদী পার্টির এমপি শফিকুর রহমান ঈদে কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারকে বিশেষ ছাড় দেওয়ার কথা বলেছিলেন। তিনি বলেন, ঈদুল আজহায় মুসলিমদের ঈদগাহ এবং মসজিদে জামাতে নামাজ পড়ার অনুমতি দেওয়া উচিত। মুসলিমরা যাতে কোরবানির পশু ক্রয় করতে পারে সেজন্য ঈদে পশু বাজার খোলার দাবিও জানিয়েছিলেন তিনি।

পাল্টা জবাবে বিজেপি’র ফায়ার ব্র্যান্ড নেতা ও বিধায়ক সঙ্গীত সোম তাকে কারাগারে পাঠানোর হুমকি দিয়ে বলেন, যেভাবে আজম খান (সমাজবাদী পার্টির নেতা) কারাগারে ঈদ পালন করেছেন, ওনাকেও ঈদ কারাগারে পালন করতে হবে

Leave a Reply

Stay Home. Stay Safe. Save Lives.
#COVID19

%d bloggers like this: