উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ১২

মোহাম্মদ ইব্রাহিম মোস্তফা, উখিয়া::

কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুই গ্রুপের মধ্যে আধিপত্যকে কেন্দ্র দুইদিন ধরে থেমে থেমে সংঘর্ষে অন্তত ১২ জন আহত হয়েছেন। তবে আহতদের পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। শনিবার থেকে রোববার (৩০ আগস্ট) বিকাল পর্যন্ত কুতুপালং ক্যাম্পের মুন্না গ্রুপ এবং ইসলাম মাহাদ গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

শনিবার প্রথমে ফাঁকা গুলিবর্ষণ ও পরে রোববার বিকাল পর্যন্ত থেমে থেমে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। বর্তমানে উক্ত ক্যাম্পের পরিস্থিতি এখন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আছে বলে জানিয়েছেন ১৪ এপিবিএন’র অধিনায়ক (পুলিশ সুপার) মো: আতিকুল ইসলাম।

তিনি জানিয়েছেন, উখিয়ার কুতুপালং নিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মুন্না গ্রুপের সঙ্গে অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইসলাম মাহাদ গ্রুপের মধ্যে ইয়াবার আধিপত্য নিয়ে বিরোধ চলে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। পরে গত শনিবার ফাঁকা গুলিবর্ষণের মাধ্যমে তা প্রকাশ্যে রূপ নেয়। এরই ধারাবাহিকতায় রোববারও থেমে থেমে সংঘর্ষ শুরু হয়। উভয় পক্ষের সংঘর্ষে ২০টিরও বেশী রেহিঙ্গাদের ঝুঁপড়ি ঘর, বেশ কয়েকটি ওয়াটার সাপ্লাইয়ের ট্যাং ভাংচুর করে।

এপিবিএন অধিনায়ক আরও জানান, খবর পেয়ে এপিবিএনের সদস্যসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছলে দুই গ্রুপের সদস্যরা পালিয়ে যায়। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। সংঘর্ষে অংশ নেয়া রোহিঙ্গাদের ধরার চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: