টেকনাফ বিজিবির অভিযানে২ লাখ ৩০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার

কক্সবাজারের টেকনাফে অভিযান চালিয়ে ২ লাখ ৩০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়ন। যার আনুমানিক মূল্য ৬ কোটি ৯০ লাখ টাকা। গতকাল মঙ্গলবার রাতে হ্নীলা ইউনিয়নের নাফ নদীর তীর এলাকা থেকে ইয়াবাগুলো উদ্ধার করা হয়। তবে এ সময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

আজ বিকেলে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান। তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির সদস্যরা জানতে পারে হোয়াইক্যং ইউনিয়নের খারাংখালী বিওপির দায়িত্বপূর্ণ বিআরএম ১৪ ও ১৫ এর মধ্যবর্তী এলাকা বরাবর নাফ নদী দিয়ে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান বাংলাদেশে প্রবেশ হতে পারে।

এমন তথ্যের ভিত্তিতে খারাংখালী বিওপির একটি বিশেষ টহলদল দ্রুত বর্ণিত এলাকায় গিয়ে অবস্থান নেয়। বেশ কিছুক্ষণ পর আনুমানিক রাত সাড়ে আটটার সময় উক্ত এলাকায় অবস্থানরত টহলদলের সদস্যরা দুজন ব্যক্তিকে হস্তচালিত কাঠের নৌকা দিয়ে মিয়ানমার হতে নাফ নদী পার হয়ে বাংলাদেশের সীমানায় প্রবেশ করতে দেখে।

নৌকাটি বাংলাদেশের সীমানা বরাবর নাফ নদীর উপকূলে আসার সঙ্গে সঙ্গে বিজিবির সদস্যরা চ্যালেঞ্জ করে।
এমন সময় মাদক কারবারীরা দূর থেকে টহলদলের উপস্থিতি টের পেয়ে নৌকা ঘুরিয়ে নিয়ে মিয়ানমারের সীমানায় পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে বিজিবির সদস্যরা ধাওয়া করে। একপর্যায়ে মাদক কারবারীরা নৌকা থেকে নদীতে লাফ দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে বিজিবির সদস্যরা নৌকাটি উদ্ধার করে নৌকায় থাকা দুটি প্লাস্টিকের বস্তা তল্লাশী করে ২ লাখ ৩০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে।

উদ্ধারকৃত ইয়াবাগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে, যা পরবর্তীতে ঊদ্ধর্তন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি ও স্থানীয় গণমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: