বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সন্ত্রাস-মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না

রাইজিংবিডি.কম
বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সন্ত্রাস বা মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি সাবেক মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেন, এ যাবত ক্রসফায়ার সন্ত্রাস ও মাদক নিয়ন্ত্রণে কোনো ভূমিকাই পালন করতে পারেনি, বরং বিপদাপন্ন করেছে।
সোমবার (১৭ আগস্ট) দলের ‘সন্ত্রাস বিরোধী দিবস’-এর এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।
মেনন বলেন, মেজর (অব.) সিনহার মৃত্যুতে রাষ্ট্রের দু’টি বাহিনীকে প্রায় পরস্পর মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দিয়েছিল। দুই বাহিনীর প্রধানকে নজিরবিহীন যৌথ সাংবাদিক সম্মেলন করে সবাইকে আশ্বস্ত করতে হয়েছে।
‘কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভে দেড়শ’র ওপর মানুষকে ক্রসফায়ার দেওয়ার পরও গত সপ্তাহেই সেখান থেকে কয়েক লাখ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এসব কারণেই মানুষের মৌলিক অধিকার হরণকারী এ ক্রসফায়ারসহ বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড এখনই বন্ধ করতে হবে- দাবি করেন মেনন।
দলের নেতা নুর আহম্মদ বকুলের সঞ্চালনায় ভার্চুয়াল আলোচনায় বক্তব্য রাখেন পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য আনিসুর রহমান মল্লিক ও ড. সুশান্ত দাস।
পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, আটাশ বছর ধরে রাশেদ খান মেননকে হত্যা প্রচেষ্টার বিচার না হওয়া এ দেশে যে বিচারহীনতার সংস্কৃতি প্রচলিত রয়েছে তারই একটি দৃষ্টান্ত। খালেদা জিয়ার বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ‘অপরাশেন ক্লিন হার্ট’ হত্যাকে আইন করে দায়মুক্তি দিয়েছিলেন। আর এখন তারই অনুসরণে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডকে অঘোষিত দায়মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। তিনি এ ধরনের সব হত্যাকাণ্ডকে বিচারের আওতায় এনে দেশে আইনের শাসনকে দৃশ্যমান করার আহ্বান জানান।
১৯৯২ সালের এ দিনে সন্ধ্যায় পার্টি কার্যালয়ের সামনে রাশেদ খান মেননকে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করা হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: