সিকিম ও ডোকলাম সীমান্তে চীনের ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটি

সীমান্তবর্তী এলাকা নিয়ে ফের মুখোমুখি হচ্ছে ভারত-চীন। ডোকলাম ও সিকিমের স্পর্শকাতর সীমান্ত এলাকায় দুটি নতুন ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটি তৈরি করছে চীন।

সম্প্রতি উপগ্রহ চিত্রে এটি ধরা পড়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, নতুন ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটিগুলো থেকে নিশানা ভেদ করতে আরও বেশি সফল হবে চীনা সেনারা।
টুইটারে @detresfa নামধারী তথ্য বিশ্লেষকের শেয়ার করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে যে, সীমান্ত অঞ্চলে দুটি ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটি গড়ছে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি। সিকিমের খুব কাছাকাছি দুটি স্থানই ভারতীয় সেনার রাডারে ‘সন্দেহজনক’ এলাকার তালিকাভুক্ত।
বিশেষজ্ঞদের মতে, নতুন ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটিগুলো থেকে নিশানা ভেদ করতে আরও বেশি সফল হবে চীনা সেনারা। দুটি ঘাঁটিই ডোকা-লা গিরিপথ থেকে প্রায় ৫০ কিমি আওতার মধ্যে এবং ডোকলাম মালভূমির কাছে। যেখানে ২০১৭ সালে ভারত-চীনা সেনার মধ্যে ৭৩ দিনব্যাপী সামরিক দ্বন্দ্ব ঘটেছিল এবং গত ৯ মে দুই দেশের সেনার মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।
টুইটারে @detresfa জানিয়েছে, উল্লিখিত দুই অঞ্চলে ভারতীয় সেনাবাহিনী নিয়মিত নজরদারি অভিযান চালায়। এ কাজে ব্যবহার করা হয় পি-৮ পোসাইডন নজরদারি প্লেন। উপগ্রহ চিত্রে স্পষ্ট যে, ভারত-ভুটান ও চীনের ত্রিদেশীয় সীমান্তের সংযোগস্থলের কাছেই একটি ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটি গড়ছে পিএলএ। অন্যটি তৈরি হচ্ছে সিকিমের বিপরীতে চীনা ভূখণ্ডে। এখনো পর্যন্ত চীনের এ উদ্যোগ সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করেনি ভারত।

খবর হিন্দুস্তান টাইমস

Leave a Reply

%d bloggers like this: