ইলিশ ধরা বন্ধ: সরকারি সহায়তা পাবেন কুতুবদিয়ায় ৩,৬০০ জন জেলে

কুতুবদিয়া সংবাদদাতা ॥
সারাদেশের ন্যায় কুতুবদিয়ায় মা-ইলিশ রক্ষায় আগামী ২২ দিনের জন্য বন্ধ হলো সব ধরনের মাছ ধরা। গত বুধবার (১৪ অক্টোবর) থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করা হয়েছে।
এ সময়ে কুতুবদিয়ার ৩,৬০০ জন জেলে সরকারি সহায়তা পাবেন। প্রতি জেলেকে সরকারের পক্ষ থেকে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে বিনামূল্যে ২০ কেজি করে চাল প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন কুতুবদিয়া উপজেলা মৎস্য সহকারী কর্মকর্তা ইমরান হোছাইন।
তিনি বলেন, কুতুবদিয়া উপজেলায় ৮ হাজার ৪৫৯ জন ইলিশ জেলে আছেন। এর মধ্যে বন্ধ থাকা সময়ে ৩,৬০০ জন জেলেকে ২০ কেজি করে চাল প্রদান করা হবে। এর আগে ৬৫ দিন বন্ধের সময় আমরা ৮ হাজার ৪৫৯ জন জেলেকে সরকারি সহায়তা প্রদান করেছি।
তিনি আরও বলেন, নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে কঠোর নজরদারি থাকবে প্রশাসনের। এসময় পুলিশ, কোস্টগার্ড ও স্থানীয় প্রশাসনের সমন্বয়ে যৌথ অভিযান চলবে।
তবে জেলে ও মৎস্যজীবীদের দাবি, সরকার ইলিশ আহরণ বন্ধের ঘোষণা দিলেও অন্য মাছ ধরার জন্য আমরা সাগরে যেতে পারি না। ফলে আমরা এক ধরনের বেকার জীবন পার করি। এই সময়ে আমাদের সবাইকে সরকারি সহযোগিতা প্রদান করা হলে আমরা উপকৃত হতাম।
তারা আরও বলেন, দীর্ঘ এই বন্ধে সাগরে বিদেশি মাছ ধরার ট্রলার অনুপ্রবেশ ঠেকাতে নৌ-বাহিনী ও কোস্টগার্ডের টহল জোরদারের তাগিদ তাদের।
উল্লেখ‌্য, কুতুবদিয়া উপজেলায় ৮ হাজার ৪৫৯ জন নিবন্ধিত এবং প্রায় ৯ হাজার জন অনিবন্ধিত জেলে রয়েছেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: