স্ত্রীকে ১ বছর শৌচাগারে আটকে রেখেছিল স্বামী

ভারতে এক নারীকে এক বছর শৌচাগারে আটকে রেখেছিল তার স্বামী। হরিয়ানার পানিপথের রিশপুর জেলা থেকে ওই নারীকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা এএনআই।
নারী সুরক্ষা ও বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ কর্মকর্তা রজনী গুপ্তা বলেন, ‘রিশপুর গ্রামে এক নারী তার স্বামী এক বছর ধরে শৌচাগারে বন্দি করে রেখেছে বলে আমার কাছে খবর আসে। এরপর আমি আমার টিম নিয়ে সেখানে হানা দেই। সেখানে আমরা অভিযোগের সত্যতা পাই। ওই নারীকে দেখে মনে হয়েছে তিনি অনেক দিন না খেয়েছিলেন।’
ওই নারীর স্বামীর দাবি, মানসিক রোগী হওয়ায় স্ত্রীকে তিনি শৌচাগারে আটকে রাখতেন।
তিনি বলেন, ‘আমার স্ত্রী মানসিক ভারসাম্যহীন। তাকে বাইরে বসতে বললেও সেটা করত না। এর জন্য চিকিৎসকের কাছেও নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু তাতে কোনো উন্নতি হয়নি।’
তবে রজনী গুপ্তা বলেন, ‘ওই নারীকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলা হলেও সেটি সত্য নয়। আমরা তার সঙ্গে কথা বলেছি এবং মনে হয়েছে তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন নন। তবে আমরা এ ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারব না। এক বছর তাকে শৌচাগারে আটকে রাখা হয়েছিল। উদ্ধারের পরে আমরা তার চুল পরিষ্কার করেছি। পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।’

Leave a Reply

%d bloggers like this: