1. editor.barta52@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক ও প্রকাশক
  2. kamrancox@gmail.com : Amirul Islam Md Rashed : Amirul Islam Md Rashed

বনবিভাগ ও বিচারক পরিবারের জমি থেকে অবৈধ ঘর সরানোর নির্দেশ

  • Update Time : শনিবার, ১০ জুলাই, ২০২১
  • ৩৮ Time View

 

জসিম উদ্দীন::

নানা নাটকীয়তার পর অবশেষে কক্সবাজারের খুরুশকুলের তেতৈয়া এলাকায় বিচারক পরিবারের জমি দখল করে জোরপূর্বক নির্মাণ করা স্থাপনা সরানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

দখলদারদের অবৈধ স্থাপনা সরাতে দুইদিনের সময় বেঁধে দিয়েছে প্রশাসন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কক্সবাজার সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) নু-এমং মারমা বলেন, উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে মঙ্গলবার (১ জুন) আমি ঘটনাস্থল গিয়ে ট্রেস ম্যাপ অনুযায়ী পরিমাপ করে বিচারক পরিবারের জমি দখলের সত্যতা পেয়েছি। পরে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী দখলদারদের ডেকে তাদের অবৈধ বসতি সরাতে দুইদিনের সময় বেঁধে দিয়েছি।

বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে তারা স্থাপনা না সরালে উচ্ছেদের পাশাপাশি আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান নু-এমং মারমা।

এর আগে গত এপ্রিলে কক্সবাজারের খুরুশখুল তেতৈয়া এলাকার একটি চিহ্নিত ভূমিদস্যু চক্র বনবিভাগ ও চট্টগ্রাম আদালতের সিনিয়র সহকারী জজ কামাল উদ্দীনের পরিবারের কৃষিজমি দখল করে শতাধিক ঝুপড়ি ঘর নির্মাণ করেন।

দখলদারিত্ব বজায় রাখতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র সজীব ওয়াজেদ জয় কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরমেয়র মুজিবুর রহমানের ছবি ব্যবহার করে ব্যানার টাঙিয়ে দেওয়া হয়। ব্যানারে লেখা হয় ‘মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার’।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রধান দুই আসামী ইউপি সদস্য শেখ কামাল, আওয়ামী লীগ নেতা কামাল উদ্দীন ওরফে পোস্টার কামাল বর্তমানে কারাগারে আছেন।

এদিকে দখলদাররা ঝুপড়িঘর ও দখল করা জমির ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়ে। সম্প্রতি দুই গ্রুপের মধ্যে দু’ দফা গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এসময় একটি পক্ষ অবৈধভাবে নির্মাণ করা ঝুপড়ি ঘরের ভাগ কম পাওয়ায় ক্ষোভে অর্ধশতাধিক ঝুপড়ি ঘরে অগ্নিসংযোগ করে।

অগ্নিংযোগের পর দখলদাররা বিচারক পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে মামলা করার চেষ্টা করে। ভাড়া করা লোক দিয়ে বিক্ষোভ, মানববন্ধন করে বিচারক পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বিষোদগার, চরিত্রহননের চেষ্টাসহ বিভিন্ন কৌশলে অবৈধ দখলদারিত্ব ধরে রাখার চেষ্টায় লিপ্ত হয়। কিন্তু বিভিন্ন গণমাধ্যম ও প্রশাসনের সরব ভূমিকায় শেষপর্যন্ত দখলদাররা সুবিধা করতে পারেনি। অবশেষে মঙ্গলবার এসিল্যান্ড ওই জায়গায় উপস্থিত হয়ে দুই দিনের মধ্যে দখল ছেড়ে দিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন। অন্যথায় প্রশাসনের উদ্যোগে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হবে বলে হুঁশিয়ার করা হয়।

Share on your Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News .....
© All rights reserved Samudrakantha © 2019
Site Customized By Shahi Kamran