1. samudrakantha@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক ও প্রকাশক
  2. aimrashed20@gmail.com : Amirul Islam Rashed : Amirul Islam Rashed

টেকনাফ স্থল বন্দরে অতিরিক্ত বানিজ্য সচিব

  • Update Time : শনিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২১
  • ৬৭ Time View

শেখ রাসেল,টেকনাফ::

দেশে পেঁয়াজের দাম সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসার জন্য মিয়ানমার থেকে বেশি বেশি পেঁয়াজ আমদানী করার জন্য আমদানিকারকদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন অতিরিক্ত বানিজ্য সচিব এইচ এম শফিকুজ্জামান।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) সকালে তিনি টেকনাফ স্থল বন্দরে পৌঁছলে উপজেলা নির্বাহীর কর্মকর্তা মোঃ পারভেজ চৌধুরী, টেকনাফ স্থলবন্দরের সিএন্ডএফ এসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল আমিন, বন্দরের মহাব্যবস্থাপক জসিম উদ্দিন চৌধুরী , রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুন নুর সহ অন্যান্য ব্যক্তিগণ তাকে স্বাগত জানান। বানিজ্য সচিব বন্দরের পণ্য উঠা-নামাঘাট, ইমিগ্রেশন ঘাট,ওয়ার হাউস সহ আমদানি রপ্তানী পণ্যের গুদাম পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে টেকনাফ স্থল বন্দরের বিভিন্ন সমস্যা ব্যবসায়ীদের অভিযোগ অনুযোগ সামগ্রিক বন্দরের বিষয় নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, মতবিনিময় সভা আমদানী রপ্তানিকারক, যানবাহনের মালিক শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সিএন্ডএফ এজেন্ট আমদানি রপ্তানিকারক, সংবাদকর্মী শ্রমিক সংগঠনের নেত্রীবৃন্দ ও বন্দরের নিয়োজিত সকল দপ্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

এসয় অতিরিক্ত বানিজ্য সচিব এইচ এম শফিকুজ্জামান বলেন, টেকনাফ স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন সমস্যা দ্রুতসময়ে সমাধানের ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এর পাশাপাশি দেশের পেঁয়াজের সংকট দেখা দিয়েছে। তা দ্রুত সময়ে মূল্য কমিয়ে সাধারণ জনগনের কাছে পৌঁছানোর জন্য সরকার যে ব্যবস্থা নিয়েছেন। টেকনাফ স্থলের বানিজ্য ব্যবসায়ীদেরকে মিয়ানমার থেকে বেশি বেশি পিয়াস এনে সরকারকে সহযোগিতা করতে হবে। পেঁয়াজের যে শুল্কছিল তা প্রত্যাহার করা নেওয়া হয়েছে। বিনা শুল্কে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানী করার জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবান জানান।
তিনি পণ্য বুজায় গাড়ি ভাড়া বৃদ্ধি, রোহিঙ্গা শ্রমিক প্রত্যাহার,ব্যাংকের বুথ স্থাপন, পানীয়জলের ব্যবস্থা সহ বন্দরের বিভিন্ন সমস্যা দ্রুত সময়ে সমাধানের আশ্বাস প্রদান করেন। দীর্ঘদিন ধরে মেসার্স টেকনাফ ট্রেডিং এর স্বত্তাধীকারীর নজরুল ইসলাম ৫/৬ বৎসর ধরে ব্যবসায়ীদের জিম্মি করে স্থানীয় শ্রমিকদের বাদ দিয়ে, রোহিঙ্গা শ্রমিক সাপ্লাই দিয়ে আসছে। ফলে বন্দরের অভ্যান্তরিন বিষয় যেমনি বাহির হচ্ছে, তেমনি চোরা চালান, মাদকদ্রব্যের সয়লাব হয়ে যাচ্ছে। এই পয়েন্ট গুলো উত্থাপন করলে সচিব এর দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশদেন।

এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ পারভেজ চৌধুরী, ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের অপারেশন অফিসার ক্যাপ্টেন মোঃ মোহতামিম, কাস্টম রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুন নুর, বন্দরের ব্যাবস্থাপক জসিম উদ্দিন চৌধুরী, কোয়ারান্টাইন কর্মকর্তা, সিএন্ডএফ এজেন্টের সভাপতি আব্দুল আমিন, বানিজ্য ব্যবসায়ী,সংবাদকর্মী সহ বন্দরে নিয়োজিত সকল স্থরের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

Share on your Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News .....
© All rights reserved Samudrakantha © 2019
Site Customized By Shahi Kamran