1. samudrakantha@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক ও প্রকাশক
  2. aimrashed20@gmail.com : Amirul Islam Rashed : Amirul Islam Rashed

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাত্রা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৫২ Time View

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাওয়ার বিষয়ে করা আবেদনের ওপর খুব শিগগিরই মতামত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।
মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন আয়োজিত ‘মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা ও মানবিক মূল্যবোধ’ শীর্ষক রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান শেষে বেরিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।
আনিসুল হক বলেন, ‘আইনের মধ্যে থেকেই আমাদেরকে সিদ্ধান্ত নিতে হয়। সরকার কোনো আরবিট্টরি (বিধিবহির্ভূত) পদক্ষেপ নিতে পারে না।’
তিনি বলেন, ‘সুপ্রিমকোর্ট থেকে বিএনপি সমর্থিত ১৫ জন আইনজীবী এসেছিলেন। তাদের বক্তব্যের মধ্যে কোথাও আইনি কোনো সাপোর্ট আছে কি না, সেটা আমরা খতিয়ে দেখেছি। কিন্তু কোনো সাপোর্ট পাইনি। তাদের কোনো বক্তব্য আদালত সাপোর্ট করেননি। বরং আমি যে বক্তব্য দিয়েছি, সেটা সংসদেও বলেছিলাম, অনেক রায়ে সেটারই সাপোর্ট আছে। তবে খুব শিগগিরই আইন মন্ত্রণালয় থেকে অভিমত দিয়ে দেওয়া হবে।’
খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে যুক্তরাজ্যের পাঠানো চিঠি প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘যুক্তরাজ্য থেকে যে চিঠিটি পাঠানো হয়েছিল, তাতে তথ্যের ভুল ছিল। সেই ভুল তথ্যের ব্যাপারে আমার সঙ্গে যখন ব্রিটিশ হাইকমিশনারের দেখা হয়, তখন আমি সেটা পরিষ্কার করেছি।’
তিনি বলেন, ‘হাইকমিশনারকে পরিষ্কারভাবে আমাদের আইনের ব্যাখ্যা দিয়েছি এবং খালেদা জিয়া যে মুক্ত এবং তার আইনি অবস্থানটা তাদের বুঝিয়েছি।’
ইসি গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে রাজনৈতিক দলের সংলাপ প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে।’
অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কমিশন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তারা সারাবিশ্বের মানবাধিকার রক্ষার ওয়াচডগ। দেশ পরিচালনায় নিয়োজিত প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে মানবাধিকার রক্ষার বিষয় নিয়ে কমিশনের ভিন্নমত থাকতে পারে, দ্বন্দ্ব হতে পারে, সমালোচনার সম্মুখীন হতে পারে। কিন্তু কমিশনকে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে অবিচল থাকতে হবে। সকলের প্রত্যাশা উন্নত বাংলাদেশের উপযোগী মানবাধিকার পরিবেশ সৃষ্টি করার লক্ষ্যে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন কাজ করে যাবে।’
আনিসুল হক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই আইন প্রণয়ন করে মানবাধিকার রক্ষার জন্য জাতীয় মানবাধিকার কমিশন গঠন করেন। মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা ও মানবাধিকার রক্ষার ব্যাপারে দেশ অনেকটা অগ্রসর হয়েছে। কিন্তু আরও অনেক দূর আমাদের যেতে হবে।’

Share on your Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News .....

© All rights reserved Samudrakantha © 2019

Site Customized By Shahi Kamran