1. samudrakantha@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক ও প্রকাশক
  2. aimrashed20@gmail.com : Amirul Islam Rashed : Amirul Islam Rashed

শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক অবস্থা দেউলিয়া দশায় চলে যাচ্ছে

  • Update Time : বুধবার, ২৩ মার্চ, ২০২২
  • ১২১ Time View

শ্রীলঙ্কা (যারা কিনা সম্প্রতি বোরখার বিরুদ্ধে আইন পাশ করতে চাচ্ছিল) নামটি শুনলে চোখের সামনে ভেসে উঠে ভারত মহাসাগরের বুক চিরে দাঁড়িয়ে থাকা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর সবুজ প্রকৃতি ও নীল স্বচ্ছ জলরাশির দেশ। শ্রীলঙ্কা হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার একটি দ্বীপ রাষ্ট্র। ১৯৭২ সালের আগে এই দ্বীপ রাষ্ট্রটি সিলন নামেও পরিচিত ছিল।
ভারতের দক্ষিণ উপকূল তথা তামিলনাড়ুর ধানুসকডি হতে ৩১ কিলোমিটার দূরে শ্রীলঙ্কার অবস্থান। সেই প্রাচীনকাল থেকেই শ্রীলঙ্কা বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত। সিংহলি সম্প্রদায় প্রায় (৭৫%) এই দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠী। শ্রীলঙ্কা চা, কফি, নারিকেল, রাবার উৎপাদন ও রফতানিতে বিখ্যাত।
নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য সংবলিত সমুদ্রসৈকত, ভূ-দৃশ্য তদুপরি সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য শ্রীলঙ্কাকে সারা পৃথিবীর পর্যটকদের কাছে অত্যন্ত আকর্ষণীয় করে তুলেছে। পৃথিবীতে শ্রীলঙ্কা একমাত্র অমুসলিম দেশ যেখানে রেডিও ও টেলিভিশনে পাঁচ ওয়াক্ত আযান দেয়া হয়।
শ্রীলঙ্কার ভৌগোলিক অবস্থান এর কারণে আবহাওয়া বেশ চমৎকার। চারদিকে সমুদ্র থাকার কারণে শ্রীলঙ্কার আবহাওয়া নাতিশীতোষ্ণ। দেশটির জিডিপি গতবছর ছিল ৮৫ বিলিয়ন ডলার যা এ বছর সংকুচিত হয়ে ৭৫ বিলিয়ন ডলারে চলে আসতে পারে। শ্রীলঙ্কার বিদেশি ঋণ ৪৫ বিলিয়ন ডলার।
শুধুমাত্র এ বছরই পরিশোধ করতে হবে ৭.১০ বিলিয়ন ডলার! অথচ শ্রীলঙ্কার বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আছে সাকুল্যে ২.৩ বিলিয়ন ডলার, তারমধ্যে আবার ভারত-বাংলাদেশের দেয়া ঋণের ঝামেলা তো আচগেই। এ বছরই চূড়ান্তভাবে দেউলিয়া হয়ে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা আছে ২ কোটি ৩০ লাখ জনসংখ্যার দেশ শ্রীলঙ্কার।
দেশটির নেতাদের অদূরদর্শী সিদ্ধান্ত, ভুল নীতি ও পরিকল্পনা, দুর্নীতি, অযথা বিদেশি ঋণে উচ্চ সুদে হোয়াইট এলিফ্যান্ট প্রজেক্ট, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের চরম সাম্প্রদায়িক নীতি, উগ্র জাতীয়তাবাদ শ্রীলঙ্কাকে আজ এ অবস্থায় নিয়ে এসেছে!
এখন মাথাপিছু ৪ হাজার ডলার দিয়েও শ্রীলঙ্কানরা তেল কিনতে পারছেনা, কাগজের অভাবে পরীক্ষা দিতে পারছেনা। লোডশেডিংয়ে বিপর্যস্ত তাদের শিল্প। জিনিসপত্রের দাম আজ ২০ টাকা তো কাল সেটা ৩০ টাকা হয়ে যাচ্ছে!
শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক অবস্থা খুব খারাপ। নিত্য প্রয়োজনীয় প্রতিটি জিনিসের দাম আকাশচুম্বী। বিদ্যুৎ নেই । দোকান পাট বন্ধ রাখতে বাধ্য হচ্ছে মালিকরা । কাগজের অভাবে পাবলিক পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে অনির্দিষ্টকালের জন্য ।
সহজ কথায় দেশটা দেউলিয়া দশায় চলে যাচ্ছে।

 

Share on your Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News .....

© All rights reserved Samudrakantha © 2019

Site Customized By Shahi Kamran