1. samudrakantha@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক ও প্রকাশক
  2. aimrashed20@gmail.com : Amirul Islam Rashed : Amirul Islam Rashed

তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদে মুখর কক্সবাজার তাঁতীলীগের নেতাকর্মীরা

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৪ মার্চ, ২০২২
  • ৩৭ Time View

প্রধানমন্ত্রীকে মৃত দাবী করে তাঁতীলীগ সভাপতির দোয়া ও ভুয়া জন্মদিন পালন!

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

১৯৭৫ সালের শোকাবহ ১৫ আগস্টের দিন শেখ হাসিনা এবং শেখ রেহেনাকেও নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিলো দাবী করে আত্মার মাগফেরাত কামনা করলেন তাঁতীলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শওকত আলী।

গত ১৯ মার্চ রাজধানীর ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউর বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের হলরুমে অনুষ্ঠিত তাঁতীলীগের ‘জন্মবার্ষিকী’ পালন করতে গিয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বঙ্গবন্ধুর অপর তনয়া শেখ রেহেনাকে মৃত ঘোষণা করে এভাবেই দোয়া করেন।

স্যোসাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, তাঁতীলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইন্জিনিয়ার শওকত আলী বক্তব্য রাখতে গিয়ে শুরুতেই বলছেন ‘সেদিন বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে আততায়ীরা নিহত করেছে, জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেখ রেহেনা আপাকে সহ সবাইকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে; আমি তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করছি।’

ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের অন্যতম অঙ্গসংগঠন বাংলাদেশ তাঁতীলীগের ‘জন্মবার্ষিকী’ অনুষ্ঠানে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শওকত আলীর এমন অজ্ঞতাপূর্ণ বক্তব্যে কঠোর সমালোচনার ঝড় উঠেছে স্যোসাল মিডিয়ায় সহ সর্বত্র। বিশেষ করে সংগঠনটির নেতা কর্মীদের মাঝে এনিয়ে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। তাদের দাবী, জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া একটি সংগঠনকে এভাবেই অযোগ্য নেতৃত্ব চাপিয়ে দিয়ে ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে। রাজনীতির কোন ইতিহাস অথবা বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের প্রতি নুন্যতম ধারণা না থাকা লোকগুলোর হাতে সংগঠনটি জিম্মি হয়ে পড়েছে। তারা নিজেদের সুবিধা মতে প্রকৃত ইতিহাসও বিকৃত করছে তারা।

এদিকে আরও অভিযোগ উঠেছে, কেন্দ্রীয় সভাপতি ইঞ্জি. শওকত আলী এবং সাধারণ সম্পাদক খগেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথ ষড়যন্ত্র মূলক ভাবে ১৯ মার্চকে তাঁতীলীগের জন্মবার্ষিকী হিসেবে পালন করছে।

অভিযোগকারী নেতাকর্মীদের মতে, এই দিনটি ভুয়া। প্রকৃত জন্মদিন হলো, ১৯৮৯ সালের ২১ ডিসেম্বর। শওকত-খগেন্দ্র সংগঠনটকে ভ্রান্ত পথে পরিচালিত করতে এই ভুয়া জন্মবার্ষিকী পালন করছে। মূলত ২০১৭ সালের এই দিনে সংগঠনটির সম্মেলন হয়। সম্মেলনে তারা সভাপতি সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হলে পরের বছর থেকে এই সম্মেলনের দিনটিকেই তাঁতীলীগের জন্ম বার্ষিকী হিসেবে পালন করে যাচ্ছে।

কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের এমন অজ্ঞতাপূর্ণ বক্তব্য এবং ‘ভুয়া জন্মদিন’ পালনের মহড়া দেখে হতাশ হয়ে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ তাঁতীলীগ কক্সবাজার জেলা শাখার সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব নুরুল আমিন চৌধুরী সহ জেলার সহস্রাধিক নেতাকর্মী। তারা সংগঠনের এমন অযোগ্য নেতৃত্বের পরিবর্তন দাবী করে প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।###

Share on your Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News .....

© All rights reserved Samudrakantha © 2019

Site Customized By Shahi Kamran