1. samudrakantha@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক ও প্রকাশক
  2. aimrashed20@gmail.com : Amirul Islam Rashed : Amirul Islam Rashed

যুক্তরাষ্ট্রে সিনহার আড়াই কোটি টাকার বাড়ি, মামলা করছে দুদক

  • Update Time : রবিবার, ২৭ মার্চ, ২০২২
  • ৪০ Time View

নানা নাটকীয়তার মধ্যে প্রায় সাড়ে চার বছর আগে দেশ ছেড়ে যাওয়া সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহা যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে একটি বিলাসবহুল বাড়ি কিনেছেন।
২ লাখ ৮০ হাজার ডলার অর্থাৎ প্রায় আড়াই কোটি টাকা দামে তিনতলা বিশিষ্ট বাড়িটি কিনতে ব্যয়ের তথ্য ও রেকর্ডপত্র হাতে পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। সিনহার এই বাড়ি কেনার বিষয়ে দুদক তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।
দুদকের উপ-পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধান সিনহার যুক্তরাষ্টে বাড়ি কেনার বিষয়টি ঢাকাটাইমসকে নিশ্চিত করেন। সিনহার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি। কমিশনের এই কর্মকর্তা এসকে সিনহার বিরুদ্ধে দুদকের করা অন্য মামলারও তদন্ত কর্মকর্তা।
জানা গেছে, অর্থ পাচারে বিষয়ে মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, আরব আমিরাতসহ পথিবীর বিভিন্ন দেশে এসকে সিনহার সম্পদের তথ্য চেয়ে চিঠি পাঠায় দুদক। দুদকের পাঠানো সেসব চিঠির প্রেক্ষিতে সিনহার বাড়ি কেনার রেকর্ডপত্র দুদক কর্মকর্তার হাতে এসে পৌঁছে।
দুদকের তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বিদেশে বাড়ি কেনার জন্য সাবেক এই প্রধান বিচারপতির ছোট ভাই অনন্ত কুমার সিনহার মাধ্যমে বাড়ি কেনার অর্থ বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পাচার করেছেন। এই সংক্রান্ত রেকর্ডপত্রাদির সত্যতা মিলেছে।
দুদক সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১২ জুন ২ লাখ ৮০ হাজার ডলারে (৮৬ টাকা ডলার হিসেবে বাংলাদেশি টাকায় যা ২ কোটি ৪০ লাখ ৮০ হাজার) সিনহার জন্য তিনতলা একটি বাড়ি কিনেন তার ভাই অনন্ত কুমার।
এই বাড়িটি কেনার আগে ৩০ বছরের কিস্তিতে আমেরিকার সরকারের কাছ থেকে অনন্ত নিজের জন্য ১ লাখ ৮০ হাজার ডলার ব্যাংক ঋণ নিয়ে একটি বাড়ি কিনেছিলেন। পেশায় চিকিৎসক অনন্ত প্রথম বাড়িটি ৩০ বছরের কিস্তিতে কিনলেও নিজের ভাইয়ের জন্য বাড়ি কিনেছেন নগদ টাকায়।
অনুসন্ধান প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালে এসকে সিনহার ছোট ভাই অনন্ত কুমার সিনহা নিউজার্সির প্যাটারসনে অবস্থিত ভ্যালি ন্যাশনাল ব্যাংকের একটি হিসাবে ৫ মার্চ থেকে ২৮ মে পর‌্যন্ত ৬০ হাজার ডলার জমা হয়। ওই একই হিসাবে অন্য একটি উৎস থেকে একই বছরের ১১ এপ্রিল থেকে ২০ জনু পর‌্যন্ত এক লাখ ৯৬ হাজার ৪৫৮ ডলার জমা হয়।
দুদকের অনুসন্ধান ও তদন্ত সূত্রে জানা যায়, সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বাড়ি কেনার বা বিদেশে অর্থ পাচারে বৈধ কোনো উৎেসের সন্ধান পায়নি সংস্থাটি। দুদক সংশ্লিষ্ট সূত্র মনে করে এসকে সিনহা বিভিন্ন সময়ে ঘুষ হিসেবে যেসব টাকা গ্র্রহণ করেছেস তা বিদেশে পাচার করেছেন। দুদক তার বিরুদ্ধে মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ও দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনবে সংস্থাটি।
গত বছরের ৭ অক্টোবর ক্ষমতার অপব্যবহার করে রাজউকের প্লট বরাদ্দ ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে এসকে সিনহার বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুদক। এসকে সিনহা তার নিজ নামে রাজউকের উত্তরা প্রকল্পে একটি প্লট বরাদ্দ পান।
পরবর্তীতে ক্ষমতার অপব্যবহার করে অবৈধ প্রভাব খাটিয়ে ও প্রতারণার মাধ্যমে তার ভাই নরেন্দ্র কুমার সিনহার নামে রাজউক পূর্বাচল প্রকল্পে তিন কাঠার আরও প্লটের জন্য আবেদন করেন।
ক্ষমতার অপব্যবহার করে ভাইয়ের নামে আবেদন করা ওই তিনকাঠার প্লট বরাদ্দ নেন। পরে তিন কাঠার প্লটটিকে আবারও প্রভাব খাটিয়ে পাঁচ কাঠার প্লটে রূপান্তর করেন।
এছাড়া সাবেক ফারমার্স ব্যাংক বর্তমানে পদ্মা ব্যাংক থেকে চার কোটি টাকা ঋণ জালিয়াতি ও অর্থপাচারের মামলায় সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহাকে চার বছর এবং সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

Share on your Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News .....

© All rights reserved Samudrakantha © 2019

Site Customized By Shahi Kamran