1. samudrakantha@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক ও প্রকাশক
  2. aimrashed20@gmail.com : Amirul Islam Rashed : Amirul Islam Rashed

রমজান কে সামনে রেখে মিয়ানমার হতে টেকনাফ বন্দরে ছোলা আমদানি

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৯ মার্চ, ২০২২
  • ৭৭ Time View

 শেখ রাসেল,টেকনাফ::

কক্সবাজারের টেকনাফ স্থল বন্দরে পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে ছোলা আমদানি শুরু হয়েছে ।
সোমবার সন্ধ্যায় ৩৩৮ মেট্রিক টনের চেয়ে একটু বেশি ছোলা স্থলবন্দরে পৌঁছেছে । সাড়ে ৭০০ বস্তায় এসব ছোলা টেকনাফ স্থলবন্দরে পৌঁছায় বলে  বন্দরের শুল্ক কর্মকর্তা শাহীন আক্তার গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন ।
স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, গত বছর মিয়ানমার থেকে টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে এক হাজার ৪৯১ মেট্রিক টন ছোলা আমদানি করা হয়েছিল। চলতি মাসে কয়েক দিনের মধ্যে এপর্যন্ত  ৮৫৭ মেট্রিক টন ছোলা মিয়ানমার থেকে আমদানি করা হয়েছে। সরকার ছোলা আমদানিতে কোনো ধরণের রাজস্ব আদায় করছেন না।তাই ব্যবসায়ীদের সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে।
মেসার্স সেভেন স্টারের তত্তাবধায়ক মোহাম্মদ আরফাতুর রহিম বলেন, সোমবার সন্ধ্যায় সেভেন স্টার ও মেসার্স ওয়াটার ওয়েজ নামে দুটি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের সাড়ে ৭০০ বস্তা ছোলা স্থলবন্দরে আসে। কয়েক দিনের মধ্যে আরও ৫০০ মেট্রিক টন ছোলা আমদানি করা হবে। কিন্তু রমজান সামনে রেখে মিয়ানমারের ব্যবসায়ীরা সে দেশে ছোলার দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন।
টেকনাফ স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আবদুল আমিন জানান, আমদানি করা প্রতি কেজি ছোলার দাম পড়ছে ৬৪ টাকা। শ্রমিক, বন্দর ও জাহাজভাড়া বাবদ খরচ হচ্ছে সাড়ে তিন টাকা করে ,চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে নিয়ে বিক্রি করতে খরচ পড়ছে কেজি প্রতি দুই টাকা।সামান্য লাভ করেই স্থানীয় ব্যবসায়ীদের কাছে ৭১ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে।
তিনি আরো জানান, চট্টগ্রাম বন্দরের পরিবর্তে টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে ছোলা আমদানি করা হলে তা তুলনামূলক কম দামে বিক্রি করা যাবে। কারণ, টেকনাফ স্থলবন্দর থেকে মিয়ানমার খুব কাছে হওয়ায় পরিবহন খরচও কম হয়ে থাকে ।এতে ব্যবসায়ীরা লাভবানও হচ্ছে ।তাই ব্যবসায়ীরা টেকনাফ বন্দরের দিকে ঝুঁকছেন।

Share on your Facebook

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News .....

© All rights reserved Samudrakantha © 2019

Site Customized By Shahi Kamran